Mountain View

বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী মানুষের সাথে ভারত থাকবে : ফখরুল

প্রকাশিতঃ জুন ২০, ২০১৬ at ৩:১৯ অপরাহ্ণ

জনগণের ওপর চেপে বসা’ সরকারকে প্রশ্রয় না দিয়ে ভারত বাংলাদেশের ‘গণতন্ত্রকামী’ মানুষের সঙ্গে থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সোমবার দুপুরে রাজধানীর ইনঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে দেশব্যাপী গণগ্রেফতারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। এ বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর বিএনপি।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেন, গুপ্তহত্যা ও জঙ্গিবাদের উত্থান ঠেকাতে ব্যর্থ হয়ে সরকার জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন খাতে ফেরাতে সাঁড়াশি অভিযানের নামে গণগ্রেপ্তার চালিয়েছে। তবে তারা একটি ক্ষেত্রে সফল হয়েছে। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ গতকাল বলেন, বাংলাদেশ যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে, সঠিক পথে আছে।

‘ভারত আমাদের প্রতিবেশী শুধু নয়, অকৃত্রিম বন্ধু। আমরা সব সময় প্রত্যাশা করব, ভারতবর্ষ বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী মানুষের সঙ্গেই থাকবে। তারা এমন কোনো শক্তি বা সরকারকে প্রশ্রয় দেবে না, সহযোগিতা করবে না, যারা জনগণের ওপর চেপে বসা,’ বলেন ফখরুল। মির্জা ফখরুল বলেন, গত এক সপ্তাহে অভিযানে ১৩ থেকে ১৪ হাজার মানুষ গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে জঙ্গি ১৯২ জন। বাকিরা কারা? তিনি বলেন, দৃষ্টি ভিন্ন খাতে ফেরাতে এই অভিযান চালানো হয়েছে।

আসল অপরাধীদের চিহ্নিত না করে গুপ্ত হত্যার দায় সরকার বিরোধী দলের ওপর চাপাচ্ছে অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, দেশে গণতন্ত্র নেই। সরকার যা খুশি করছে। এখন ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানে পর্যন্ত বাধা দেয়া হচ্ছে। মির্জা ফখরুল তার দলের নেতা-কর্মীদের নিজেদের মধ্যে বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে এবং কারাগারে থাকা নেতা-কর্মীদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

গ্রেফতারকৃত আমাদের বন্ধুদের বের করে আনতে হবে। আন্দোলনের কোনো বিকল্প কোন পথ নেই। গণতান্ত্রিক আন্দোলনেরমাধ্যমে আমাদের বিজয় অর্জন করতে হবে।  বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে দলের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির প্রমুখ বক্তব্য দেন।

এ সম্পর্কিত আরও