Mountain View

‘ডট বাংলা’ চালু করতে তারানার চিঠি গেলো আইসিএএনএনের কাছে

প্রকাশিতঃ জুন ২১, ২০১৬ at ১০:১৯ অপরাহ্ণ

বাঙ্গালদেশের নিজস্ব ভাষা ‘বাংলা’র নামে দ্রুত ডোমেইন চালু করার অনুমতির জন্য তাগাদা দিয়ে আন্তর্জাতিক সংস্থার কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। ডোমেইন ন্যাম সিস্টেম পরিচালনাকারী সংস্থা ইন্টারনেট করপোরেশন ফর অ্যাসাইন্ড নেমস অ্যান্ড নাম্বারস (আইসিএএনএন)-এর কাছে আজ (মঙ্গলবার) চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

বাংলাদেশের সব প্রস্তুতি থাকলেও ডোমেইন ন্যাম সিস্টেম পরিচালনাকারী সংস্থার অনুমতি না পাওয়ায় চালু করা যাচ্ছে না ‘ডট বাংলা’।তারানা হালিম নিজ দফতরে বলেন, আমাদের সব কাজ শেষ, এখন আইসিএএনএন’র বোর্ড মিটিংয়ে ডোমেইন চালুর অনুমোদন আসবে। পৃথিবীর একমাত্র জাতি বাঙালি যারা ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি ভাষার জন্য জীবন দিয়েছে উল্লেখ করে আইসিএএনএন’র কাছে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, এর কারণে ইউনেস্কো ওই দিনটিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি দিয়েছে এবং সারাবিশ্বে তা পালিত হচ্ছে।‘এ বিষয়টি বাঙালি জাতি সাইবার স্পেসেও জায়গা করে নিতে চায়।’

ডোমেইন ন্যাম সিস্টেম পরিচালনাকারী সংস্থা আইসিএএনএন ডোমেইনের অনুমতি দিয়ে থাকে।‘যত দ্রুত সম্ভব অনুমতি দেওয়ার জন্য চিঠিতে বলা হয়েছে’- বলেন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন ডোমেইনটি পাওয়া গেলে ওয়েবসাইট ঠিকানার শেষে ডট কম বা ডট নেট এর স্থলে ডট বাংলা যুক্ত করে ওয়েবসাইট খোলা যাবে, যা বাংলা ভাষার জন্য গর্বের। টেলিযোগাযোগ বিভাগ জানায়, ২০১০ সালে বাংলা ডোমেইন চালু করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর তা নিয়ে কারিগরি কাজ শুরু করে বিটিআরসি।

পরবর্তীতে তারা ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব জমা দেয়। পরে তা পর্যালোচনা করে বিটিসিএল। দেশের নামে ডোমেইন ‘ডট বিডি’র নিয়ন্ত্রক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে বিটিসিএল।

বিটিসিএল জানায়, ২০১১ সালে ডট বাংলা ডোমেইন ব্যবহারের অনুমোদন পাওয়া গেলেও তত্ত্বাবধায়ক প্রতিষ্ঠান নিযুক্ত করতে না পারায় দীর্ঘ সময়েও এটি চালু করা সম্ভব হয়নি। গত বছরের জুন মাসে আবারও ডোমেইনটি কার্যকর করতে উদ্যোগ নেয় সরকার।ডোমেইনটির বর্তমান অবস্থা জানতে আইসিএএনএন’কে চিঠির জবাবো জানানো হয়, ডোমেইনটি বাংলাদেশের জন্য বরাদ্দ রয়েছে।

ডট বাংলা ডোমেইনের জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশ সংগ্রহ, সার্ভার স্থাপন এবং অন্যান্য কারিগরি প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। ডোমেইন বিক্রির জন্য নীতিমালাও চূড়ান্ত হয়েছে বলে জানান বিটিসিএল’র এক কর্মকর্তা। আইসিএএনএন’র অনুমতি মিললে দেশের পরিচিতি দিয়ে বাংলাদেশের প্রথম কান্ট্রি কোড টপ-লেভেল ডোমেইন ‘ডট বিডি’র পর বাংলা ভাষার পরিচিতি দিয়ে ‘ডট বাংলা’ হবে আরেকটি নিজস্ব ডোমেইন।

‘ডট বাংলা’র অনুমতি পাওয়া গেলে বাংলা ভাষাকে ওয়েব বিশ্বেও পরিচিত করবে এই ডোমইন ন্যাম। এতদিন ডট কম, ডট নেট, ডট অর্গ’র মতো ডোমেইন নিয়ে দেশীয় প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট পরিচালনা করা হলেও নিজস্ব বাংলা ভাষার স্বকীয়তা নিয়ে ওয়েবসাইট পরিচালনা করা যাবে।

অর্থাৎ ওয়বেসাইট ঠিকানার শেষে ডট বাংলা (.bangla) লিখেলেই পাওয়া যাবে কাঙ্খিত ওয়েবসাইট। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে নিজস্ব ভাষায় বা দেশের নামে তাদের ডোমেইন ন্যাম পরিচিতি বহন করে।

উল্লেখ্য গত ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ডট বাংলা চালু হওয়ার কথা থাকলেও সাড়া মেলেনি।

এ সম্পর্কিত আরও