চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি বাতিল হচ্ছে

প্রকাশিতঃ জুন ২৩, ২০১৬ at ৮:৩৮ অপরাহ্ণ

২০২১ আসরের পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি বাদ দেয়ার চিন্তা করছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। ইএসপিএনক্রিকইনফোর এক রিপোর্টে আজ একথা বলা হয়েছে। ২০১৩ সালে এ টুর্নামেন্ট বাদ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু প্রথমবারের মতো বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপ আয়োজনের পরিবর্তে ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডে আর এরকবার এ টুর্নামেন্ট আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

তবে ২০১৯ সালে নতুন ওয়ানডে ইন্টারন্যাশনাল (ওডিআই) লীগ চালু হলে আগামী বছর ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য আসরটিই হতে পারে শেষ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। অবশ্য ওয়ানডে লীগকে ‘মিনি বিশ্বকাপও ’ বলা চলে। নতুন এ লীগে মোট ১৩টি দল তিন বছরে একে অপরের বিপক্ষে খেলবে। আর সেরা দলগুলো ২০২২ সালে প্লে অফ ম্যাচ খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।

আইসিসি যেহেতু ৫০ ওভারের ফর্মেটে তিনটি চ্যাম্পিয়নশীপের পক্ষে নয় তাই ভারতে ২০২১ আসরটি না-ও হতে পারে। এমনটা হলে ২০২২ অথবা ২০২৪ সালের টি-২০ বিশ্বকাপ আয়োজক হতে পারে ভারত। অবশ্য এডিনবার্গে অনুষ্ঠিতব্য আইসিসির আসন্ন বার্ষিক সভায় দুই বছর অন্তর টি-২০ বিশ্বকাপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত পাশ হলে।
তিন সপ্তাহের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সাধারণত ১৫টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। আগামী বছর ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য এ টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ।

র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ আট দলের এ টুর্নামেন্ট থেকে বাদ পড়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। ২০১৩ সালের ফাইনালে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে শিরোপা লাভ করেছিল টিম ইন্ডিয়া। অবশ্য এর আগে ২০০২ সালে শ্রীলংকার সঙ্গে যৌথভাবেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া ২০০৬ ও ২০০৯ পর পর দুই আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।

এ সম্পর্কিত আরও