ঢাকা : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, শুক্রবার, ৯:৫২ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

এবার আইসিসির বিপক্ষে যা বললো বিসিবি

সম্প্রতি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের আলোচিত ইস্যু দ্বি-স্তর বিশিষ্ট টেস্ট ক্রিকেট পদ্ধতি। যদিও এই পদ্ধতির বিপক্ষে কিছুদিন আগে না হাঁটলেও সরাসরি না বলেননি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বলেছিলেন সুবিধা থাকলে এই পদ্ধতির পক্ষেই মত দিবেন তারা। কিন্তু বিসিবির সহ-সভাপতি মাহবুব আনাম জানালেন ভিন্ন কথা। টেস্ট দ্বি-স্তর বিশিষ্ট ক্রিকেটের বিপক্ষেই অবস্থান নেবেন তারা বলে জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে স্কুল ক্রিকেটের ফাইনালের পুরস্কার বিতরণী শেষে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হন মাহবুব আনাম। সে সময়ই দ্বি-স্তর নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ভাবনা জানান তিনি।

আইসিসির দ্বি-স্তর বিশিষ্ট টেস্ট ক্রিকেট পদ্ধতি প্রসঙ্গে মাহবুব আনাম বলেন, ‘আমরা এটাকে অবশ্যই সমর্থন করি না। ক্রিকেট খেলা এমন একটি জিনিস, আপনি যতই প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ দলের সঙ্গে খেলবেন ততই উন্নতি হবে। ওয়ানডেতে আমরা যদি বড় দলগুলোর সঙ্গে না খেলতাম, তাহলে আমাদের এ অবস্থান তৈরি হতো না।’

এর আগে গত ১৯ জুন বিসিবির সভা শেষে নাজমুল হাসান জানান, দ্বি-স্তর টেস্ট ক্রিকেটের ভাবনা নিয়ে বোর্ডে কোনো আলোচনা হয়নি। সভায় এটি নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা ছিল। প্রসঙ্গ উঠেছিলও। কিন্তু সেদিন নাজমুল হাসান সেই আলোচনা থামিয়ে দিয়েছিলেন। আইসিসির ভাবনাটির কথা এ মাসের শুরুর দিকে জানিয়েছেন সংস্থার প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসন। টেস্ট ক্রিকেটকে আরও অর্থবহ ও জনপ্রিয় করতেই দ্বি-স্তরে ভাগ করার কথা ভাবছে আইসিসি। র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম সাতটি দলকে নিয়ে হতে পারে প্রথম স্তর।

এমনটা হলে সেক্ষেত্রে বাংলাদেশকে খেলতে হতে পারে দ্বিতীয় স্তরে। তাতে দেশের ক্রিকেটে নেমে আসতে পারে অনেক বিপর্যয়। টিভি স্বত্ব থেকে আয় কমবে নিশ্চিতভাবেই; আগ্রহ কমবে স্পন্সর ও সংবাদমাধ্যমের, কমবে জনপ্রিয়তা। আসবে অনেক চ্যালেঞ্জ।

টেস্ট ক্রিকেটে ততটা উন্নতি করতে না পারলেও ওয়ানডে ক্রিকেটে দারুণ শক্তিশালী বাংলাদেশ দল। আর এটা সম্ভব হয়েছে বড় দলগুলোর সঙ্গে নিয়মিত খেলার কারণেই। তাই নিয়মিত বড় টেস্ট দলগুলোর সঙ্গে খেলতে পারলে টেস্ট ক্রিকেটেও বাংলাদেশের আরো উন্নতি হবে বলে জানান তিনি। তাই এ মুহূর্তে দ্বি-স্তরের সিদ্ধান্ত মানতে পারছেন না বিসিবির এই সহ-সভাপতি।

এ প্রসঙ্গে মাহবুব আনাম বলেন, ‘আমরা সহযোগী সদস্য থেকে যখন পূর্ণ সদস্য হয়েছি, তখন যে স্তরে খেলতাম সেখানে আমরা নিজেদের বনের রাজা মনে করতাম। যখন আমরা ঊর্ধ্বস্তরে আসলাম, তখন আমরা একটা ধাক্কা খেলাম। সেটা সত্যিকারের জগত, সেখানে প্রতিযোগিতা অন্য পর্যায়ের ছিল। সেখান থেকে যদি আবার পিছিয়ে আসি, তাহলে আমি মনে করি আমাদের ক্রিকেট আরো পিছিয়ে যাবে। মোটেও অগ্রসর হবে না। তাই টেস্ট ক্রিকেটে দ্বি-স্তর পদ্ধতি আমি সমর্থন করি না।’

তবে এ নিয়ম করতে চাওয়ার জন্য আইসিসির সিদ্ধান্তের কঠোর সমালোচনাও করেন তিনি। তার মতে আইসিসির দায়িত্ব ক্রিকেটের বিশ্বায়ন করা। দলগুলো মধ্যে বিভেদ তৈরি করা নয়।

এ প্রসঙ্গে বিসিবির সহ-সভাপতি বলেন, ‘আইসিসির দায়িত্ব হচ্ছে ক্রিকেটের বিশ্বায়ন করা। আইসিসির দায়িত্ব এটা নয় যে, তারা একটা বিশেষ ভেদাভেদ তৈরি করবে। আমরা মনে করি না গ্লোবাল অর্গানাইজশনেরও তেমনটা হওয়া উচিৎ।’

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

ব্যাংক অব দ্য ইয়ার অ্যাওয়ার্ড পেলো ইসলামি ব্যাংক

দি ব্যাংকার ও ফাইন্যান্সিয়াল টাইমস গ্রুপের দেওয়া ব্যাংকিং খাতের অস্কার খ্যাত ‘ব্যাংক অব দ্য ইয়ার …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *