Mountain View

ফেসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে পড়ায় আত্মহত্যা তরুণীর

প্রকাশিতঃ জুন ২৮, ২০১৬ at ৭:৫২ অপরাহ্ণ

ফেসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে পড়ায় আত্মহত্যা তরুণীর

tamil-nadu-woman-suicide

 ছ’দিন আগেই মেয়েটির সঙ্গে ঘটে যায় মর্মান্তিক ঘটনাটি। ফেসবুকের মাধ্যমে বিকৃত ও অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে পড়েছিল। সবাই যখন আড়চোখে তাকাতে শুরু করেছে যুবতী চেয়েছিলেন বাপ-মা অন্তত ওর পাশে থাকবে। এটুকু ভরসা ছিল বছর একুশের তরুণীর। না, কেউ ওর পাশে থাকেনি। তাই সর্বনাশের লজ্জা ঢাকতে বেছে নিলেন সর্বনাশা পথ। একপ্রকার মানসিক অবসাদের জেরে শেষপর্যন্ত আত্মহত্যা করলেন সাইবার ক্রাইমের শিকার বেনুপ্রিয়া নামের ওই তামিল তরুণী।

সোমবার সালেমে বেনুপ্রিয়ার বাড়ি থেকেই বেনুপ্রিয়ার দেহ উদ্ধার করা হয়। মনকষ্ট বোঝাতে একটি সুইসাইড নোট লিখে যায় তরুণী। সেটি তার ঘর থেকেই পায় পুলিশ। সুইসাইড নোট জুড়ে ছিল মা বাবার তার প্রতি অবিশ্বাসের হতাশার কথা। সেখানে সে বলেছে অনেক বার বাবা মা’কে সে বলেছিল সে নির্দোষ। বোঝাতে চেয়েছিল তাঁকে বিপদে ফেলার জন্য কেউ এরকম করেছে। তার ওপর সামান্য বিশ্বাস রাখতে বলেছিল এই বলে যে তাঁদের মেয়ে এমন কাজ করতে পারে না। কিন্তু কঠোর দুনিয়ায় কেউ বোঝেনি, বিশ্বাস রাখেনি বেনুপ্রিয়ার ওপর। শেষ পর্যন্ত জীবনের প্রতি আস্থা হারায় সে। নোট থেকে পাওয়া তথ্য বলছে “ এই জীবনের কোন মানেই থাকে না যখন নিজের বাবা মা তার মেয়েকে বিশ্বাস করে না”।  ইতোমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তাঁরা জানিয়েছে বেনুপ্রিয়ার নামে কেউ ফেসবুকে জাল প্রোফাইল বানিয়ে তারপর ফটোশপে তার অশ্লীল ছবি বানিয়ে পোস্ট করে দেয়। শেয়ার করে দেওয়া অনেকের সাথে। ঘটনায় তরুণীর মা বাবা আবার আঙ্গুল তুলেছে পুলিশের দিকে। তাদের বক্তব্য তাঁরা গত ২৩ জুন তারিখে এই অভিযোগ পুলিশের কাছে দায়ের করেছিল। তাঁরা নাকি ওই ছবি গুলিকে সরিয়ে দিয়ে কারা এই নোংরা কাজটি করেছে তার তদন্ত করবার কথাও পুলিশকে বলেছিলেন। কিন্তু পুলিশ কোনরকম সহযোগিতা ও পদক্ষেপ নেয়নি। বেনুপ্রিয়ার মা বাবার এমন অভিযোগের ব্যাপারে পুলিশ মুখ না খুললেও তাঁরা এটুকু জানিয়েছেন যে ফেসবুকের দফতরের সাথে তাঁরা যোগাযোগ করেছেন। কে বা কারা এই কান্ডটি ঘটিয়েছে সমস্ত তথ্য তাদেরকে পাঠানোর জন্য বলা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View