Mountain View

এখন দ্বিগুন বেতন বেড়েছে, হালাল করে খাবেন

প্রকাশিতঃ জুন ৩০, ২০১৬ at ১:২৩ অপরাহ্ণ

শিক্ষকদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব ঠিকমতো পালনের আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আশ্বাস দিয়েছেন, কয়েক বছর পর তাদের বেতন আবারও দ্বিগুণ হয়ে লাখ টাকা হতে পারে।Nahid

শিক্ষকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘সরকার শিক্ষকদের বেতন দ্বিগুণ করেছে। ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করলে ৫ বছর পর আবারও দ্বিগুণ হতে পারে আপনাদের বেতন। বেতন লাখ টাকাও হতে পারে।’

গতকাল (বুধবার) ২৯ জুন বিকেলে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ (স্বাশিপ) আয়োজিত ‘গুপ্তহত্যা ও জঙ্গিতৎপরতা দমনে শিক্ষক সমাজের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি ওই আশ্বাস দেন।

তিনি বলেন, ‘আামদের লক্ষ্য নতুন প্রজন্মকে এমনভাবে গড়ে তোলা, যাতে তারা দেশকে আধুনিক বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলতে পারে। এ জন্য শিক্ষাক্ষেত্রে মৌলিক পরিবর্তন আনতে হবে।’

নিজেকে শিক্ষা পরিবারের একজন কর্মী উল্লেখ করে নাহিদ বলেন, ‘শিক্ষকরা আমাদের মূল শক্তি। আমরা আপনাদের সম্মান, শ্রদ্ধা ও মর্যাদা দিয়ে রাখতে চাই। আপনাদের বেতন বেড়েছে। আশা করি আপনারাও এটাকে হালাল করে খাবেন। দ্বিগুণ বেতন বেড়েছে দ্বিগুণ উৎসাহ নিয়ে কাজ করবেন।’

শিক্ষাক্ষেত্রে অনেক ভুল-ত্রুটির কথা স্বীকার করে মন্ত্রী বলেন, ‘এখন আমাদের কাজ হচ্ছে শিক্ষার গুণগতমান অর্জন করা। যাতে বিশ্বের সবখানে নিজেদের যোগ্যতা দিয়ে কাজ করতে পারি। তবে শুধু বিশ্বমানের শিক্ষা অর্জন করলেই হবে না, সৎ, চরিত্রবান ও নিষ্ঠাবান দেশপ্রেমিক হিসেবে শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলতে হবে।’

ইসলামকে শান্তির ধর্ম আখ্যা দিয়ে নাহিদ বলেন, ‘কিছু মানুষ ইসলাম ধর্মকে অপব্যাখ্যা দিয়ে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে চায়। এই অপব্যাখাকারীদের বিরুদ্ধে সব সময়ই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমার বলতে দ্বিধা নেই, এদেশের কিছু মানুষ বিশেষ করে জামায়াত ও মুসলিম লীগ ছাড়া বাকীকি সবাই স্বাধীনতার পক্ষে ছিলেন। সবার মিলিত লড়াইয়ে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করেছে।’

সংগঠনের সভাপতি প্রফেসর ড. আব্দুল মান্নান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা সচিব মো. সোহরাব হোসেন ও ইসলামি-আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ। এ ছাড়া বক্তব্য দেন স্বাশিপের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. শাহজাহান আলম সাজু, অধ্যক্ষ এম এ আউয়াল সিদ্দিকী, প্রফেসর সাজিদুল ইসলাম প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত আরও