ঢাকা : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, শুক্রবার, ৯:৫১ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

কারা এই বন্দুকধারী?

bonduk

কারা এই বন্দুকধারী? এখন এমন প্রশ্ন সবার মুখে। সবাই জানতে চায় কারা এমন নৃশংস ঘটনার সাথে জড়িত। তবে আজ শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বন্দুকধারীদের সম্পর্কে কিছুই জানা যায়নি। পুলিশের আইজি যদিও বলেছেন নিহত ছয়জনই বাংলাদেশী। নিহতদের তিনি জঙ্গি বলেও উল্লেখ করেন।এদিকে, আটককৃত আহত বন্দুকধারী সম্পর্কেও কিছুই জানা যায়নি। সে কোথায় আছে তা-ও বলছে না আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

গুলশানের হোটেল আর্টিজানে হামলাকারী বন্দুকধারীদের মধ্যে ছয়জন নিহত হয়েছে। কমান্ডোদের অভিযান শেষে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে এই ছয়জনের নাম-পরিচয় জানায়নি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তাদের লাশগুলো সিএমএইচ-এ রাখা হয়েছে। আহত অবস্থায় যে গ্রেফতার হয়েছে তারও নামপরিচয় জানাতে পারেনি থানা পুলিশ। তাকে কোথায় রাখা হয়েছে সে সম্পর্কেও কোনো তথ্য জানা যায়নি।

এদিকে, আইজিপি একেএম শহীদুল হক বলেছেন, গুলশানের আর্টিজান রেস্টুরেন্টে সেনাকমান্ডোর নেতৃত্বে যৌথ অভিযানে নিহত ছয় জঙ্গির সবাই বাংলাদেশী। এর মধ্যে পাঁচজন পুলিশের তালিকাভুক্ত ছিল। এদের দেশের বিভিন্ন জায়গায় খোঁজা হচ্ছিল।  আজ শনিবার রাজারবাগ পুলিশ লাইনে নিহত বনানী থানার ওসি সালাউদ্দিন এবং গোয়েন্দা পুলিশের এসি রবিউল ইসলামের নামাজে জানাজা শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক।

তিনি বলেন, জিম্মি সবাইকে বাঁচানোর আশা মাথায় রেখেই অভিযান চালানো হয়েছিল। কিন্তু শতভাগ নিশ্চয়তা দিয়ে কখনই অভিযান পরিচালনা করা যায় না। এমনকি যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্সও তা পারে না। আমরা যে ব্যবস্থা নিয়েছি তার ফলে হামলাকারীদের অনেক পরিকল্পনা সফল হয়নি।

জঙ্গিদের রুখে দেয়া হবে উল্লেখ করে আইজিপি বলেন, আমরা জিরো টলারেন্স নিয়ে জঙ্গিবাদ বিরোধী অভিযান জোরদার করবো। জঙ্গিবাদকে কখনই ছাড় দেয়া হবে না। আইজিপি বলেন, যে কোনো বিষয়ে আইএসের দায় স্বীকার করা হচ্ছে। আমারা এর লিংক খোঁজার চেষ্টা করছি। অভিযানে যে ছয় জঙ্গি নিহত হয়েছে তাদের মধ্যে পাঁচজনকে পুলিশ খুঁজছিল। তারা গুলশানে এসে নিহত হলো।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

নতুন বছরেই বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতুর নির্মাণকাজ শুরু

২০১৭ সালের জানুয়ারিতে খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার সীমান্তবর্তী ফেনী নদীর ওপর শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু-১ …

Mountain View