ঢাকা : ২৩ আগস্ট, ২০১৭, বুধবার, ৪:৩৭ পূর্বাহ্ণ
সর্বশেষ
বন্যার্তদের জন্য ঢাবির ডীনস অ্যাওয়ার্ড উৎসর্গ করলেন সুফিয়ান বন্যায় বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালে মৃতের সংখ্যা কমপক্ষে ৮০০ ভুটানকে হারিয়ে গ্রুপসেরা বাংলাদেশ সাংবাদিক শিমুল হত্যা: ৭ আসামির আত্মসমর্পণ প্রধান আসামী নূর হোসেন ও তারেক সাঈদসহ ১৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড বহাল পরিস্থিতি বিবেচনায় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত: সিইসি পেট্রোল বোমায় হতাহতদের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নায়করাজকে শ্রদ্ধা জানাতে শহীদ মিনারে মানুষের ঢল যে মানুষটার কারণে সেদিন প্রাণে বেঁচে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আলোচিত ৭ খুন মামলার রায়ের অপেক্ষায় স্বজন ও নারায়ণগঞ্জবাসী
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

শিকারি” দেখে আসলাম মগ্ধ হলাম

  • FB_IMG_1468174507600

“শিকারি” দেখে আসলাম । ছোট্ট করে এককথায় বললে – মুগ্ধ হলাম । ডিটেইলস এ গেলে বলতে হয়- শুধু শাকিবে নয় , পুরো প্যাকেজটাই অসাধারন । মুভিটা দেখে মনে হয়েছে একটা দুর্দান্ত টিম ওয়ার্ক । অভিনেতা অভিনেত্রীদের পাশাপাশি যারা টেকনিক্যাল দিক গুলো যারা সামলিয়েছেন – তারা আমাকে মুগ্ধ করেছেন । সম্পাদনা , চিত্র গ্রহন, আবহ সঙ্গীত, সেট , অঙ্গসজ্জা – সব কিছুতে যত্নের ছাপ। আসলেই, কলকাতার কলাকুশলীরা টেকনিক্যালি আমাদের তুলনায় অনেক এগিয়ে গেছে । তবে , আমি হতাশার কিছু দেখি না। ভালো কলাকুশলী আমাদের ও আছেন । রীতিমতো পড়াশুনা করে শিখে নতুন অনেকে আসছেন। এখন পোস্ট প্রোডাকশন এর কাজ গুলো করার সুযোগ বাড়ালেই মুভি বানিয়ে পাশের দেশের ল্যাব এ দৌড়াতে হবেনা । এফডিসির হর্তাকর্তাদের শুভ বুদ্ধির উদয় হোক । সরকারী পৃষ্ঠপোষকতার পাশাপাশি স্বল্প মেয়াদী , দীর্ঘমেয়াদী প্লান নিয়ে কাজ করলে ১৬ কোটি মানুষের দেশে ইন্ডাস্ট্রির উন্নতি করা এমন কঠিন কিছু নয় । সে যাই হোক , শাকিব খান কে নিয়ে কিছু না বললে অন্যায় হয়ে যায়। হল জুড়ে শাকিবের এন্ট্রি সিন থেকেই দর্শকরা শিশ , হাত তালি দিয়ে শাকিব কে অভিনন্দিত করছিলেন। বিশেষ দৃশ্য গুলোর শেষে আশে পাশে প্রসংসা শুনছিলাম । নতুন শাকিব , স্মার্ট শাকিব – যে বিশেষণ ই দেই ; কম হয়ে যাবে । অভিনয় দিয়ে পুরোটা সময় মন্ত্র মুগ্ধ করে রেখেছেন । ক্ষণে ক্ষণে এক্সপ্রেশন পরিবর্তনের সময় গুলোতে মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন । প্রতিটা দৃশ্যে নিজেকে ফুটিয়ে তুলেছেন “কিং খান” রুপেই। শ্রাবন্তি যে শাকিবের এক্সপ্রেশন , চোখের অভিব্যাক্তির প্রশংসা করেছেন ; তা এমনি এমনিই নয় । মুভির শট গুলোতে শাকিবের চোখের দিকে ভালো করে খেয়াল করলে বুঝা যাবে- শ্রাবন্তি মোটেই বাড়িয়ে বলেননি । মুভিতে শাকিব – শ্রাবন্তির কেমিস্ট্রি ভালো লেগেছে । পুরো মুভিতেই দারুন একটা পারিবারিক আবহ আছে । পরিবারের সবাইকে নিয়ে হলে গিয়ে শিকারি দেখলে সময়টা ভালোই কাটবে – এটুকু নিঃসন্দেহে বলতে পারি। এবারে অনেক পোস্ট এ দেখলাম মফস্বল , উপজেলা শহরের অনেক সিনেমা হলে লোকজন গায়ের শার্ট খুলে , হাতপাখা দিয়ে বাতাস করেও প্রচণ্ড গরমের মধ্যে মুভি দেখছেন । ওনাদের লাখো সালাম । হল মালিকদের বলবো – হলের পরিবেশ একটু ভালো করেন; দর্শক বাড়বে । ভালো মুভি হচ্ছে , সামনে আরও বেশি হবে । আজকাল লোকজন বিনোদনের জন্য টাকার দিকে তাকায় না । ভালো মুভি দেখতে ভালো পরিবেশ পেলে অনায়াসে সে টাকা খরচ করবে । আগামী সপ্তাহে দেখবো “সম্রাট” । আজকের মত এমন হল ভর্তি দর্শক , করতালি-শিস, “হাউস ফুল” লেখা নোটিশ বোর্ড ঝুলানো থাকুক বছরের অন্যান্য সময় গুলোও– এই প্রত্যাশা রেখে আজ শেষ করলাম । পরিবার পরিজন, ফ্রেন্ডদের নিয়ে হলে গিয়ে বাংলা মুভি দেখুন; আপনার ঈদ আনন্দ ময় করে তুলুন । ধন্যবাদ।

ফেসবুক থেকে নেওয়া।

এ সম্পর্কিত আরও