Mountain View

অবশেষে ছোট করা হচ্ছে ব্যাটের পরিধি

প্রকাশিতঃ জুলাই ১৩, ২০১৬ at ৭:৫৩ অপরাহ্ণ

bat

ক্রিকেট মাঠে ব্যাটসম্যানদের আধিপত্যে নাকাল অবস্থা বোলারদের। বেদম পিটিয়ে একের পর এক চার-ছক্কা হাকানো বর্তমানে ক্রিকেটে যেন নিয়মিতই। যেখানে বেশিরভাগ সময়ই অসহায় হয়ে থাকতে হয় বোলারদের। তবে ব্যাটসম্যান ও বোলারদের মধ্যে বুঝি ভারসাম্য আসতে যাচ্ছে। ব্যাটের মাপে এ বার রাশ টানতে চলেছে বিশ্ব ক্রিকেটের আইন প্রণয়নকারী সংস্থা মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)।

ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী লর্ডসে এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির বৈঠকে ঠিক হল, ব্যাটের জন্য নির্দিষ্ট মাপ ঠিক করে দেওয়া হবে। এই বৈঠকের কমিটিতে আছেন সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি , সাবেক অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক রিকি পন্টিং, সাবেক পাকিস্তান অধিনায়ক রামিজ রাজা, সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক মাইকেল ভনরা। কমিটির চেয়ারম্যান ইংল্যান্ডের সাবেক আরেক অধিনায়ক মাইক ব্রিয়ারলি।

কমিটির বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত হয় ব্যাটের দুই ধার ও তার মাঝের অংশ কতটা পুরু হবে, তার সীমা নির্ধারণের সুপারিশ করা হবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখন ব্যাটের দুই ধার ৫৫ মিলিমিটার পর্যন্ত মোটা হয়। এমনকী ব্যাটের মাঝখানের অংশ ৮০ মিলিমিটার পর্যন্ত পুরু হয়। যা দিয়ে ক্রিস গেইল, ডেভিড ওয়ার্নার, এবি ডি ভিলিয়ার্সরা রীতিমতো ধ্বংসলীলা চালান।

ব্যাটসম্যান ও বোলারদের মধ্যে ভারসাম্য আনতে কমিটির সুপারিশে ব্যাটের দুই ধার ৩৫ থেকে ৪০ মিলিমিটারের বেশি হওয়া চলবে না। আর মাঝের অংশ ৬০ থেকে ৬৫ মিলিমিটারের বেশি হবে না। এই সুপারিশ এমসিসি’র প্রধান কমিটি অনুমোদন করলে তা যাবে আইসিসি’র ক্রিকেট কমিটিতে।

সাধারণত এমসিসি’র সুপারিশ অগ্রাহ্য করে না আইসিসি। এখন দেখার বিষয় এই সুপারিশ তারা মেনে নেয় কি না। তবে আইসিসি এই সুপারিশ মেনে নিলেও আগামী বছর অক্টোবরের আগে এই নতুন নিয়ম চালু হবে না আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে।

এদিকে আলোচনায় মোটা দাগে আরও কয়েকটি বিষয় উঠে আসে। এগুলো হলো অলিম্পিকে কি করে ক্রিকেটের অন্তভূক্তি করা যায়, দিবা-রাত্রি টেস্টের ব্যপ্তি ঘটানো ও আইসিসি’র ৪২.১৫ ধারায় ‘মানকাদ’ আইন বদলানো প্রসঙ্গে।

এ সম্পর্কিত আরও