ঢাকা : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, শনিবার, ১:০৮ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
‘পিলখানায় জড়িত পলাতকদের আনার প্রক্রিয়া চলছে’ প্রতিবেশীদের জন্য নাকি যন্ত্রণাদায়ক তাই ১৮ বছর ধরে পাপড়ি ও অনন্যাকে শিকলে বেঁধে রাখা হয়েছে মোদির আমন্ত্রণ জানিয়ে ফিরলেন জয়শঙ্কর সীমান্তে প্রথম নারী বিজিবির সদস্য মোতায়েন আসুন ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা করি- বাংলিশ পরিহার করে গাংনীতে জামাইয়ের ছুরিকাঘাতে শ্বশুর পরিবারের চার জন আহত ॥ জামাই গ্রেফতার চুলাপ্রতি গ্যাসের দাম বাড়লো ৩০০ টাকা পুলিশের মহানুভবতা, মানবতা আজও ভূলুণ্ঠিত হয়নি! সেরাজেম মেরিট স্কলারশিপ এ্যাওয়ার্ড পেলেন ঢাবির ১১ শিক্ষার্থী দেশের ৬৮টি কারাগারে ‘৭৫৭৬৮ জন কারাবন্দী ফোনে কথা বলবে ’স্বজনদের সঙ্গে
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

তিনি ছাত্রলীগনেত্রী তাই কলেজ মিলনায়তনেই গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান করলেন

chatrileauge

দেখে মনে হলো ঠিক যেন বিয়ে বাড়ি কিংবা কমিউনিটি সেন্টার। মরিচ বাতিতে ফটক সাজানো। ভেতরের রাস্তাও একইভাবে জ্বলজ্বল করছে। ছাত্রলীগের এক কেন্দ্রীয় নেত্রীর গায়ে হলুদ উপলক্ষে গতকাল (শুক্রবার) সন্ধ্যায় এভাবেই সেজেছিল রাজধানীর গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ ক্যাম্পাস।

গতকাল ধুমধাম করে কলেজ মিলনায়তনে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান করলেন ছাত্রলীগের সহসভাপতি মাসুমা আক্তার পলি। তিনি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকও।কলেজের একাধিক ছাত্রীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আগামী ২৪ জুলাই মাসুমা আক্তারের বিয়ে।

এ উপলক্ষে তিনি কলেজের ছাত্রীদের জন্য গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন। অনুষ্ঠানে তার হবু বরও উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও দুই পরিবারের অনেক অতিথি অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

ছাত্রীরা বলছেন, কলেজ হোস্টেলে থাকার নিয়ম অনুযায়ী, কেউ বিয়ে করলে তার সিট কেটে দেয়া হয়। কিন্তু ছাত্রলীগের অনেকে প্রভাব খাটিয়ে বিবাহিত হয়েও হোস্টেলে থাকেন। আর এবার কলেজের মিলনায়তনে বিয়ের আয়োজনই করা হল। পলি ছাত্রলীগনেত্রী বলেই এভাবে একটা মহিলা কলেজ ক্যাম্পাসে বিয়ে করতে পারছেন।

তারা বলছেন, নির্দিষ্ট সময়ের বাইরে বহিরাগত কেউ প্রবেশ করার নিয়ম না থাকলেও গায়ে হলুদ উপলক্ষে সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত নারী-পুরুষ নির্বিশেষে কলেজে এসেছেন। এর মধ্যে দুই পরিবারের সদস্যদের বাইরে ছাত্রলীগের অনেক নেতা-কর্মীও অংশ নেন।

অনুষ্ঠান উপলক্ষে কলেজ মিলনায়তনও সাজানো হয় মনোরম সাজে। সেখানে করা স্টেইজের পেছনে লেখা ছিল ‘সাইফ ও পলির হলুদ সন্ধ্যা।’

এ সম্পর্কে ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান বলেন, ‘তিনি তো আগে কলেজের ছাত্রী। তারপর ছাত্রলীগের নেত্রী। কলেজ প্রশাসন যদি এক্ষেত্রে অনুমতি দেয় তবে একজন ছাত্রী এ ধরনের অনুষ্ঠান করতেই পারেন।’

সন্ধ্যা থেকে একাধিকবার কলেজের অধ্যক্ষ শামসুন্নাহারের মুঠোফোনে চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

‘পিলখানায় জড়িত পলাতকদের আনার প্রক্রিয়া চলছে’

বিডিআর বিদ্রোহের সঙ্গে জড়িত পালাতকদের আইনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান …