Mountain View

মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মানে ব্যাপক দুর্নীতি

প্রকাশিতঃ জুলাই ২৩, ২০১৬ at ৯:৩৮ পূর্বাহ্ণ

kotalypara-muktijoddya-comp_209098_0


পার্বতীপুরে এক বছরেও শেষ হয়নি মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের নির্মাণকাজ। কাজ শেষ না হলেও অধিকাংশ টাকা তুলে নিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার। কাজের গুণগত মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন উপজেলার মুক্তিযোদ্ধারা। অভিযোগ পেয়ে কাজের অগ্রগতি দেখতে এসে অসন্তোষ প্রকাশ করেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব আ. মান্নান। তিরস্কার করেন কাজের তদারকিতে থাকা জেলা ও উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলীদের। ২০১৫ সালের শুরুর দিকে পার্বতীপুর শহরের নতুন বাজারে ১ কোটি ৮৫ লাখ টাকা ব্যয়ে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের নির্মাণকাজ শুরু হয়। কাজ পান দিনাজপুর জেলার বিদ্যুৎ এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী একেএম আবুল কালাম আজাদ। ওয়ার্ক অর্ডার অনুযায়ী গত জুন মাসে কাজ শেষ করার কথা ছিল তার। জুলাই মাসেও তিনি ৮০ শতাংশ কাজ শেষ করতে পারেননি। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রকল্পের কাজ করেছেন তিনি নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী দিয়ে। সিজেনিং ছাড়াই দরজায় লাগানো হয়েছে অপরিপকস্ফ কাঠ। টাইলস, গ্রিল, দরজা-জানালা সবকিছুই নিম্নমানের। জানালার গ্গ্নাস ভেদ করে কক্ষগুলোতে ঢুকছে পানি। কাজ শেষ না হতেই অধিকাংশ দেয়ালে ধরেছে নোনা। মার্কেটের দোকানগুলোতে লাগানো হয়েছে কম পুরুত্বের শাটার। দরজা-জানালা ও টয়লেটগুলোতে নকশাবহির্ভূত করা হয়েছে নির্মাণকাজ। সীমানা প্রাচীরের উচ্চতাও ২ ফুট কমিয়ে দেওয়া হয়েছে । পার্বতীপুর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার আ. হাই জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব আ. মান্নান পার্বতীপুরে এসে ভবনে প্রবেশ করে নিম্নমানের কাজ দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তিনি ভবনের অধিকাংশ পার্টিশন দেয়াল ভেঙে ফেলার নির্দেশও দিয়েছেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View