ঢাকা : ২৫ জুন, ২০১৭, রবিবার, ১:১১ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

সাপ সম্পর্কে অজানা কিছু তথ্য

sanke

সাপ নিয়ে কৌতুহলের অন্ত নেই কারোরই। বেশকিছু ভূল ধারণাও আছে আমাদের। সাপের ক্ষমতা সম্পর্কেও রয়েছে সেই ভ্রান্ত ধারণাই। নিম্নে দেখে নিন সাপ সম্পর্কে কিছু ভ্রান্ত ধারণা। ভারতীয় গণমাধ্যম জি নিউজ এমন খবর প্রকাশ করেছে।

১) অনেকেরই ধারণা হাসনাহানা বা সুগন্ধি ফুলের গন্ধে দূর দূরান্ত থেকে সাপ ছুটে আসে। কিন্তু, এটি সম্পূর্ণ একটি ভুল ধারনা। সাপের ঘ্রাণ শক্তি অত্যন্ত দুর্বল। তাই তারা কোনও ফুলের গন্ধই পায় না।

২) বীনের তালে সাপের নাচ দেখে অনেকেই মনে করেন সাপ দেখতে পায়। কিন্তু, মজার ঘটনা সাপের দৃষ্টি শক্তিও অত্যন্ত দুর্বল। সাপের কান নেই। শোনার জন্য সাপ জিভ বের করে। এই কারণেই সাপকে ঘনঘন জিভ বের করতে দেখা যায়। এছাড়াও সাপের পেটের তলায় আঁশে একধরণের স্নায়ুতন্ত্র থাকে। এই আঁশের সাহায্যেই মাটি থেকে উচ্চমাত্রার কম্পনযুক্ত শব্দ সংগ্রহ করে সাপ মস্তিষ্কে চালান করে দেয়। এইভাবেই সাপ কোনও বস্তুর অবস্থান কত দূরে তা বুঝতে পারে।

বিশ্বে প্রায় ৩০০০ প্রজাতির সাপ আছে। আন্টার্কটিকা বাদে বিশ্বের সর্বত্রই সাপের দর্শন মেলে। সাপের খাদ্য তালিকায় থাকে ইঁদুর, পাখি, ব্যাঙ, বড় সাপ ছোট হরিণ, শূকর, বাঁদর খেয়ে থাকে। নিজেদের প্রতিরক্ষার জন্যই সাপ আক্রমণ করে। তবে, আদতে এরা শান্ত ও নিরীহ প্রাণী।

৭০ শতাংশ প্রজাতির সাপই ডিম পাড়ে। সবথেকে বড় সাপ গ্রিন অ্যানাকোন্ডা, যা গড়ে ১৭ ফুট লম্বা হয়। সবথেকে ছোট সাপ বার্বাডোস থ্রেড স্নেক, মাত্র ৪ ইঞ্চি লম্বা হয় এই সাপটি। তবে, সবথেকে বড় বিষয় বিশ্বের বেশিরভাগ সাপই হয় নির্বিষ।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

‘সৌম্যকে সুযোগ দিয়ে ইমরুলের সাথে অন্যায় হচ্ছে’

‘সৌম্য বারবার একই ভুল করছে। সেটা মেনে নেয়া ঠিক হচ্ছে না। এতে ইমরুল কায়েসের সাথে …

আপনার-মন্তব্য