ঢাকা : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, সোমবার, ৬:৩২ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

বৃটিশদের ক্ষমা পাচ্ছেন না আমির

amir..

ছয় বছর আগে পাপ করেছিলেন। টিনেজার বয়সের সেই অপরাধ মোহাম্মদ আমিরের জীবন থেকে কেড়ে নিয়েছে ৫টি স্বর্ণ বছর। ‘নো’ বল কেলেঙ্কারির জন্য সব সাজা খেটে ফিরেছেন। কিন্তু ইংল্যান্ডে টেস্টে ফিরে বৃটিশ সমর্থকদের ক্ষমা পাচ্ছেন না। এবার ওল্ড ট্রাফোর্ডে দ্বিতীয় টেস্টে লাগাতার দুয়ো ধ্বণির শিকার হয়েছেন। এই কঠিন সময় সামলে শুক্রবার প্রথম দিনে পাকিস্তানের বাঁ হাতি পেসার আমিরের শিকার ২ উইকেট।

“বুউউউউউউউউ…………নো বল!!” নতুন বল হাতে আমিরের শুরুতে এমন শব্দ ওঠে ম্যানেচস্টারের মাঠে। লর্ডসে কুকীর্তি করেছিলেন ২০১০ সালের সফরে। সেখানেই ফেরা প্রথম টেস্টে। ক্রিকেট মক্কার দর্শকরা হাততালি দেননি আমিরকে। কিন্তু এতটা উত্যক্তও করেনি। পরের টেস্টে আরো চাপ বেড়েছে আমিরের ওপর।

অবশ্য শুরুতেই ওপেনার অ্যালেক্স হেলসকে বোল্ড করে দিয়ে চাপ ঝেড়ে ফেলার চেষ্টা করেছেন। আমির জবাব দিয়েছেন। বেলা বাড়ার সাথে সাথে দর্শক বেড়েছে। দুয়ো ধ্বণিও জোরালো হয়েছে। যদিও নো বল একটিও করেননি আমির। ওভারস্টেপিং যাতে না হয় তাতে ছিলেন সর্বোচ্চ সতর্ক।

ইংলিশ অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক এসবের কথাই বলেছিলেন। ইংলিশদের জানেন। বুঝেছিলেন আমিরকে কি সামলাতে হবে। লাঞ্চের পর মাঠে দর্শকের সংখ্যা প্রায় ১৩ হাজার। আমিরের সময় আরো কঠিন হয়। কুক ক্যারিয়ারের ২৯তম সেঞ্চুরি করে ফেললেন।

আর চা বিরতির ঠিক আগে কুককেই শিকার করে আরেকবার উল্লাসে মাতলেন ২৪ বছরের আমির। ২০ ওভারে ৪ মেইডেনে ৬৩ রানে ২ উইকেট। প্রথম দিনে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৩১৪। আমিরের বোলিং সেই হিসেবে দারুণ। কিন্তু পুরো সিরিজেই যে আমিরকে বৃটিশ সমর্থকদের চাপের মুখে বোলিং করে যেতে হবে তা বেশ বোঝা যাচ্ছে এখন।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

29ed8b7b75117287685ee2d40df1c204-bpl-620x330

তবে কি ঢাকা সত্যি সত্যিই ম্যাচ ফিক্সিং করেছে?

ফেসবুক মানেই ভূয়া নিউজ আর ভূয়া ভিডিও ভাইরাল! বর্তমানে আধুনিক প্রযুক্তির ফলে যে কোন ছবি …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *