ফেসবুক-ইউটিউবে একাই সাসেক্সের ভুল পাল্টে দিলেন মুস্তাফিজ

প্রকাশিতঃ জুলাই ২৪, ২০১৬ at ৯:০৭ পূর্বাহ্ণ

mustafizz fb

প্রযুক্তির উৎকর্ষতার যুগে বাণিজ্যের অন্যতম মাধ্যমই হলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যত বেশি প্রচার এবং জনপ্রিয় হওয়া যায়, ততবেশি বাণিজ্যের সুযোগ সংশ্লিষ্টদের।

সাসেক্সের বেলায়ও ঠিক তাই ঘটেছে। মুস্তাফিজ ইংলিশ কাউন্টি ক্লাবটিতে যোগ দেয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেন বিপ্লব ঘটিয়ে ফেলেছে ক্লাবটি। ২০ জুলাই মুস্তাফিজ ঢাকা থেকে লন্ডন পৌঁছানোর পর সাসেক্সের বাণিজ্যিক সাফল্যের গ্রাফ পুরোপুরি ঊর্ধ্বমুখী।

সবচেয়ে বড় প্রভাবটা পড়েছে মূলত সাসেক্সের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে। মুস্তাফিজ ২০ জুলাই সাসেক্সে গিয়ে যোগ দেয়ার আগে তাদের ফেসবুক পেজে লাইকের সংখ্যা ছিল ২১ হাজার কিংবা তার অল্প কিছু বেশি। মুস্তাফিজ যোগ দেয়ার পর গত তিন-চারদিনে তাদের পেজে লাইক বেড়ে দাঁড়িয়ে হয়েছে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার। অর্থাৎ তিনদিনে লাইক বেড়েছে দেড় লাখেরও বেশি, যা আগের তুলনায় ১৬,০৪৯ গুণ বেশি।

এছাড়াও মুস্তাফিজ যোগ দেয়ার আগে সাসেক্স তাদের পেজে কোনো পোস্ট দিলে লাইক পড়তো সর্বোচ্চ ৫০০ থেকে ৭০০। কিন্তু গত তিনদিনে দেখা গেছে তারা কোনো পোস্ট দিলে লাইক পড়ছে ১০ থেকে ২৫ হাজার পর্যন্ত।

মুস্তাফিজ যোগ দেওয়ার পর থেকে বাংলাদেশের ভক্ত-অনুরাগীরাও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সাসেক্সকে ব্যাপকভাবে অনুসরণ করছে। তা উপলব্ধি করতে পারছে সাসেক্সও। তাই তো দ্বিতীয় ম্যাচ শুরুর আগেই সাসেক্স টুইটারে বাংলায় টুইট করে টাইগার ক্রিকেটপ্রেমীদের রীতিমতো চমকে দিয়েছে।

ফেসবুকের পাশাপাশি সাসেক্সের টুইটার অ্যাকাউন্টেও পড়েছে মুস্তাফিজ প্রভাব। মুস্তাফিজ সাসেক্সে যোগদানের পর থেকেই টুইটারে ক্লাবটির অনুসারীও বাড়ছে।

একইসঙ্গে সাসেক্সের ইউটিউব চ্যানেলেও প্রভাব পড়েছে। বাংলাদেশের এই বাঁ-হাতি পেসার যোগ দেয়ার পর সাসেক্স তাদের ইউটিউব চ্যানেলে মুস্তাফিজকে নিয়ে দুটি ভিডিও পোস্ট করে। সেখানেও গ্রাফ পুরোপুরি ঊর্ধ্বমুখী।

যেখানে তাদের আগের ভিডিওগুলোর ভিউয়ার ছিল সর্বোচ্চ ২০০ থেকে ৩০০। সেখানে মুস্তাফিজ যোগ দেয়ার পর পোস্ট করা ভিডিওগুলোর ভিউয়ার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭০ থেকে ৯০ হাজার। পাশাপাশি তাদের ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার থেকে প্রায় ৪৬ হাজার।

এ সম্পর্কিত আরও