ঢাকা : ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, রবিবার, ৮:১৩ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

স্মার্ট ডিভাইসের সাউন্ড বাড়াবেন যেভাবে

sound

স্মার্টফোন বা ট্যাবের মতো মোবাইল ডিভাইসের বহুবিধ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সাউন্ড কোয়ালিটির দিকটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। শব্দ ঠিকভাবে শোনা না গেলে অনেক রকম বিপত্তি হতে পারে। শুধু এ কারণেই অনেকে ফোন বদলানোর উদ্যোগ নিয়ে থাকেন। তবে কিছু টিপস জানা থাকলে বাড়তি পয়সা খরচ না করলেও চলবে।

সব হ্যান্ডসেটের সাউন্ড কোয়ালিটি যদিও এক নয়- তবুও কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করলে আপনার ডিভাইস থেকে সর্বোচ্চ মানের সাউন্ড আউটপুট পেতে পারেন।

অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের সাউন্ড কোয়ালিটি বৃদ্ধি করার কিছু টিপস নিয়ে এ টিউটোরিয়াল।

ভাল মানের কাভার ব্যবহার
বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কাভারের কারণে স্মার্টফোনের স্পিকার ঢাকা পড়ে যায়। এতে সাউন্ড আউটপুট বিঘ্নিত হয়। তাই কাভার কেনার সময় সেটি যাতে হ্যান্ডসেটের সঙ্গে খাপ খায় অর্থ্যাৎ স্পিকার উন্মুক্ত থাকে তা খেয়াল রাখতে হবে।

ভালো মানের ইয়ারফোন ব্যবহার
স্মার্টফোনে যারা গান শুনতে ভালবাসেন তাদের জন্য প্রয়োজন ভালো মানের একটি ইয়ারফোন। ইয়ারফোন যুতসাই না হলে আপনার মিউজিক অভিজ্ঞতা খুব একটা আনন্দদায়ক হওয়ার কথা নয়।

সেটিংস চেক করা
মোটামুটি সব অ্যান্ডয়েড ডিভাইসে বিল্ট-ইন হিসেবে কিছু অডিও সেটিংস অপশন থাকে। সেটিংস অপশনে এটির বিস্তারিত রয়েছে। তবে বিভিন্ন ব্রান্ডের ক্ষেত্রে হ্যান্ডসেটে কিছুটা তারতম্য দেখা যায়।

স্যামসাং : এ ব্র্যান্ডের মোবাইলে সেটিংস অপশনে সাউন্ড>অডিও সেটিংসে গেলে আপনি সাউন্ড কাস্টমাইজেশন কিছু অপশন পাবেন । এ ছাড়া প্রিসেট কিছু সাউন্ড মোডও পাবেন।

চাইলে সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন অথবা নিজের পছন্দ অনুযায়ী কাস্টমাইজ করে নিতে পারেন।

শাওমি : এ ব্র্যান্ডের হ্যান্ডসেটগুলোতে সেটিংসে ‘হেডফোন অ্যান্ড অডিও ইফেক্টস’ নামে বিশেষ এক অপশন আছে। আপনি সেখান থেকে সাউন্ড কাস্টমাইজেশন করে নিতে পারেন।

এ ছাড়া আপনি কি ধরনের ইয়ারপিচ কিংবা হেডফোন ব্যবহার করছেন তাও নির্বাচন করে দিতে পারবেন, যা সর্বোচ্চ মানের সাউন্ডের অভিজ্ঞতা দেবে আপনাকে ।

এর পাশাপাশি সনির সকল ফোন, এলজি, লেনোভো, মেইজু, অপ্পো, সিম্ফনি, ওয়ালটনে এ সুবিধা পাওয়া যাবে।

স্টক অ্যান্ড্রয়েডবিশিষ্ট হ্যান্ডসেটগুলোতে সুবিধাটি অনুপস্থিত। তবে প্লেস্টোরে এ সংক্রান্ত কিছু অ্যাপ পাওয়া যাবে, যা দিয়ে স্টক অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা এ ঘাটিতি পুষিয়ে নিতে পারবেন।

ভালো মানের মিউজিক প্লেয়ার ব্যবহার
অনেক ক্ষেত্রেই অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে বিল্ট ইন হিসেবে থাকা মিডিয়া প্লেয়ারগুলোর মান কিছুটা খারাপ হয়ে থাকে। এ জন্য প্রয়োজন ভালো মানের একটি থার্ড পার্টি মিডিয়া প্লেয়ার অ্যাপ। গুগল প্লে স্টোরে বেশ কিছু ভালো মানের অ্যাপ্লিকেশন পেতে পারেন আপনি । যেমন-

  • ফনোগ্রাফ
  • পালসার অডিও প্লেয়ার
  • মিউজিকম্যাচ
  • এমএক্স প্লেয়ার
  • জেট অডিও প্লেয়ার

এগুলোর যে কোনো একটি অ্যাপ ব্যবহারে আপনি সেরা সাউন্ড আউটপুট পেতে পারেন । এ ছাড়া প্রতিটি অ্যাপের নিজস্ব কিছু সাউন্ড কাস্টমাইজেশন অপশন আছে, চাইলে সেগুলো চালু করে নিতে পারেন ।

সাউন্ড বুস্টার ব্যবহার
অ্যান্ড্রয়েডের সাউন্ড সর্বোচ্চ পরিমান পর্যন্ত বাড়িয়ে নিতে পারেন কিছু অ্যাপ কিংবা কাস্টম মোড ব্যবহার করে । এগুলোর মধ্যে ভাইপার ফর অ্যান্ড্রয়েড, ডলবি এটমস, ই-কিউ প্লাস অন্যতম । তবে এগুলো ব্যবহারের জন্য অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস রুট করা থাকতে হবে।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

ebf95596807d7a2e27c3defaee1b8f6fx600x400x41

পত্রিকা ব্যবসা পুনরুজ্জীবিত করতে মাইক্রোসফটের যৌথ উদ্যোগ

তথ্য ও প্রযুক্তি : ইন্টারনেটের বিস্তারে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সংবাদপত্র শিল্পে বিপর্যয় নেমে এসেছে। তবে এমন নয় …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *