Mountain View

মস্কোয় রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে বাংলাদেশ-রাশিয়ার চুক্তি

প্রকাশিতঃ জুলাই ২৬, ২০১৬ at ৯:২৯ অপরাহ্ণ

rupor

পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলায় রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে বাংলাদেশ-রাশিয়ার মধ্যে ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশকে ৯০ হাজার কোটি টাকা (১১.৪ বিলিয়ন ডলার) ঋণ দেবে রাশিয়া।আজ (মঙ্গলবার) ২৬ জুলাই রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

পুরো প্রকল্পটি বাস্তবায়নে খরচ হবে প্রায় ১ লাখ কোটি টাকা। রাশিয়ার ঋণ ছাড়া অবশিষ্ট অর্থায়ন করবে বাংলাদেশ সরকার।আগামী ২০১৭ থেকে ২০২৪ সালের মধ্যে নির্মিত হবে পরমাণু বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রটি। অর্ধবার্ষিক হিসেবে ২০ বছরে এই ঋণ শোধ করবে বাংলাদেশ।

ঋণ শোধের কিস্তি শুরু হবে আগামী ২০২৭ সালের মার্চ মাস থেকে।রূপপুর পরমাণু কেন্দ্রে স্থাপিত হতে যাওয়া দুটি রি-অ্যাক্টরের প্রতিটি ১২শ’ মেগাওয়াট করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। প্রথম রি-অ্যাক্টরটি আগামী ২০২২ সাল থেকে উৎপাদনে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

পরের বছর চালু হবে দ্বিতীয় রি-অ্যাক্টরটি। প্রতিটি রি-অ্যাক্টরের মেয়াদ হবে ৬০ বছর। তবে পরবর্তীতে এর মেয়াদ ২০ বছর বাড়ানোর সুযোগ থাকবে।

গত বছরের ২৫ ডিসেম্বর বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন (বিএইসি) এবং রাশিয়ার রোসাতম এ ব্যাপারে চুক্তি স্বাক্ষর করে।

ওই সময় বাংলাদেশ সরকারের মুখপাত্র কামরুল ইসলাম ভুইয়া রয়টার্সকে বলেছিলেন রূপপুরের ৯০ শতাংশ অর্থায়ন করবে রাশিয়া।

উৎপাদনে যাওয়ার প্রথম বছর বিদ্যুৎ কেন্দ্রটির তত্ত্বাবধানে থাকবেন রোসাতমের প্রকৌশলীরা। তবে পরের বছর থেকে এর দায়িত্ব নেবে বাংলাদেশ।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View