ঢাকা : ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, শুক্রবার, ১১:৫৫ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

পাকিস্তানকে চারদিনে হারিয়েই বদলা নিল ইংল্যান্ড

Stuart-Broad-of-England-celebrates-with-teammates

প্রতিশোধ নেয়ার জন্য যেন তর সইছিল না ইংল্যান্ড দলের। ঠিক পরের ম্যাচেই পাকিস্তানকে পাওনা বুঝিয়ে দিল ‘সুদে-আসলে’। ওল্ড ট্রাফোর্ডে সফরকারীদের ৩৩০ রানে হারিয়ে আগের মাচে লডর্স টেস্টে হারের বদলা নেয়ার পাশাপাশি সিরিজে সমতা আনলো ইংল্যান্ড।

লর্ডসে পাকিস্তানের কাছে হেরছিল চার দিনে। ওল্ড ট্রাফোর্ডেও পাকিস্তানকে আজ সোমবার ম্যাচের চতুর্থ দিনেই হারিয়েছে তারা। লর্ডসে পাকিস্তানি খেলোয়াড়রা বেশ কয়েকটি রেডর্ক গড়েছিল দলীয় ও ব্যক্তিগত নৈপূণ্যের, ওল্ড ট্রাফোর্ডেও ঠিক একই কাজ করলো স্বাগতিকরা। তবে একটা জায়গায় অবশ্য অ্যালিস্টার কুকের দল এগিয়ে আছে, জয়ের ব্যবধানে। লর্ডসে তারা হেরেছিল ৭৫ রানে, আর আজ পাকিস্তানকে হারালো ৩৩০ রানের বিশাল ব্যবধানে।

এই ম্যাচ জিততে হলে ইতিহাস সৃষ্টি করতে হতো পাকিস্তানকে। চতুর্থ দিন সকালে ইংল্যান্ড ওয়ানডে মেজাকে ব্যাটিং করে ১ উইকেট ১৭৩ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করার পর পাকিস্তানের সামনে জয়ের লক্ষ্য দাড়ায় ৫৬৫। টেস্ট ইতিহাসে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড ৪১৮। জিততে হলে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে হতো পাকিস্তানকে।

তাই এই ম্যাচে পাকিস্তানের জয়ে সম্ভাবনা দেখতে সাহস পায়নি তাদের ঘোরতর সমর্থকরাও। আশা ছিল যদি আজকের দুই সেশন ও আগামীকাল শেষ দিন ব্যাটিং করে ম্যাচ ড্র করতে পারে মিসবাহ উল হকের দল।

কিন্তু সে আশার গুড়ে বালি ছিটিয়েছেন পাক ব্যাটসম্যানরা। ১৪৫ রান তুলতেই টপ অর্ডারের ৫ উইকেট নেই। প্রথম ইনিংসের মত আজও অব্যাহত ছিল ব্যাটসম্যানদের আশা যাওয়ার মিছিল। মোহাম্মদ হাফিজের ৪২ ও অধিনায়ক মিসবাহর ৩৫ রান ছাড়া কেউ বলার মত কোন রান পায়নি।

শেষ দিকে লেট অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা টেনেটুনে দলের স্কোর দুইশো পার করেছে আর ইংল্যান্ডে জয় কিছুটা বিলম্বিত করেছ মাত্র। দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ইউনুস খানের ব্যাট আজো হাসেনি। এ নিয়ে টানা ৬ ইনিংসে পঞ্চাশের কমে আউট হলেন সাবেক অধিনায়ক। সব মিলে ২৩৪ রানে শেষ হয়েছে পাকিস্তানের দ্বিতীয় ইনিংস। আর দলের সবচেয়ে বড় ভরসা অধিনায়ক মিসবাহ প্রথম ইনিংসের মত আজ লড়াই করার আভাস দিয়েছিলেন; কিন্তু ৩৫ রানের মাথায় ক্রিস ওকসের একটি বল তার স্ট্যাম্প ছাত্রাখান করে দেয়।

ইংল্যান্ডের পক্ষে জেমস অ্যান্ডারসন, মইন আলী ও ক্রিস ওকস ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হয়েছে ডাবল সেঞ্চুরিয়ান জো রুট।

ইংল্যান্ড : ৫৮৯/৮ (ঘোষণা) ও ১৭৩/১ (ঘোষণা)

পাকিস্তান ১৯৮ ও ২৩৪
ফল: ইংল্যান্ড ৩৩০ রানে জয়ী

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

20161202_100329

অসাধারণ ‘ডাবল’ অর্জনের সামনে তিন ইংলিশ

এমন একটি ‘ডাবল’ যেটি ক্রিকেট ইতিহাসের কোনো দেশের দুই ক্রিকেটার একই বছরে অর্জন করতে পারেননি। …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *