‘অভ্যুত্থানে জড়িত সেনা ও বিমানঘাঁটি বন্ধ করবে তুরস্ক’

প্রকাশিতঃ জুলাই ৩০, ২০১৬ at ৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ

tru


তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম বলেছেন, সাম্প্রতিক ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানে ব্যবহার করা সেনা ও বিমানঘাঁটি বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হবে। তিনি বলেন, ঘৃণ্য সেনা অভ্যুত্থানের কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত রাজধানী আংকারার একিনসি বিমানঘাঁটি বন্ধ করে দেয়ার কথা বিবেচনা করা হচ্ছে।

তিনি জানান, ঘাঁটিটি বন্ধের পর একে সেনা অভ্যুত্থানের ঘটনায় শহীদ হওয়া ব্যক্তিদের জন্য স্মরণীয় স্থানে পরিণত করা হবে। এ বিমানঘাঁটির পাশে শুক্রবার আয়োজিত এক সমাবেশে এসব কথা বলেন তুর্কি প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন, “আংকারা ও ইস্তাম্বুলের যেসব ব্যারাক থেকে ট্যাংক এবং হেলিকপ্টার পাঠিয়েছে সেগুলোকে আমরা বন্ধ করে দিচ্ছি।” তিনি অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেন, “ফতেহউল্লাহ গুলেনকে দেশে ফেরত আনার বিষয়ে সরকার কোনো প্রচেষ্টা বাদ দেবে না। আমরা তাকে তুরস্কে ফেরত আনব।”

এদিকে, তুরস্কের শ্রমমন্ত্রী সুলায়মান সয়লু বলেছেন, তার মন্ত্রণালয়ের ১,৩০০ ব্যক্তির বিরুদ্ধে সেনা অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

এ সম্পর্কিত আরও