Mountain View

ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বন্দিদের কেরানীগঞ্জে নবনির্মিত কারাগারে স্থানান্তর সম্পন্ন

প্রকাশিতঃ জুলাই ৩০, ২০১৬ at ৭:৩৫ পূর্বাহ্ণ

পুরনো ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বন্দিদের কেরানীগঞ্জে নবনির্মিত কারাগারে স্থানান্তর সম্পন্ন হয়েছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে সর্বশেষ বহরে ১৮৪ জন বন্দিকে কেরানীগঞ্জে বর্তমান কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার হোসেন সকালে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন, পুরো প্রক্রিয়া তিনি মনিটরিং করছেন।

ভোর ৬টা থেকে বন্দি স্থানান্তর প্রক্রিয়া শুরু হয়। মোট ৬ হাজার ৪০০ বন্দিকে স্থানান্তর করা হয়।

সিনিয়র জেল সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর বলেন, ‘যে কোনো ঝুঁকি এড়ানোর জন্য আগেই দেশের বিভিন্ন কারাগারে নারী, কিশোর, যুদ্ধাপরাধী ও অন্য ভয়ংকর অপরাধীদের স্থানান্তর করা হয়েছে।’

বন্দি স্থানান্তর প্রক্রিয়াকে সহায়তা করতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের নিরাপত্তা বাহিনী ও গোয়েন্দা ছাড়াও দুই কারা এলাকার চার পাশে এবং নতুন কেন্দ্রীয় কারাগার পর্যন্ত রাস্তার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও দাঙ্গা পুলিশের পর্যাপ্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ১০ এপ্রিল কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের রাজেন্দ্রপুরে ১৯৪ দশমিক ৪১ একর জমির ওপর নতুন এই কারাগার স্থাপন করা হয়। ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে প্রথম বুড়িগঙ্গা সেতু থেকে এর দূরত্ব ৫ কিলোমিটার।

পুরো কারাগার ২৫ ফুট উঁচু দেয়াল দিয়ে ঘেরা। কারাগারে প্রত্যেক কর্নারে ৪০ ফুট উঁচু ৪টি পর্যবেক্ষণ টাওয়ার রয়েছে। কারাগারের পুরো এলাকা সিসিটিভি ক্যামেরার আওতাভুক্ত।

নবনির্মিত কারাগারে হাসপাতাল, ওয়ার্কশপ, লন্ডি ও স্পিনিং মিল রয়েছে।

এছাড়া এই কারাগারের সম্মুখভাগে একটি ভিজিটর রুম, জেল কর্মকর্তা ও তাদের পরিবারের জন্য পৃথক রুম, অফিসার্স ক্লাব, স্টাফ ক্লাব, স্কুল, মসজিদ ও সম্মেলন কক্ষ রয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও