জ্যামাইকা হারলেও সাকিবের দারুণ বোলিং

প্রকাশিতঃ জুলাই ৩১, ২০১৬ at ৮:৫১ পূর্বাহ্ণ

sakib

১০ দিন বিরতির পর মাঠে নেমে বল হাতে সফল সাকিব আল হাসান। চার ওভার বল করে ২৫ রানের বিনিময়ে তাঁর শিকার এক উইকেট। কিন্তু সাকিবের দারুণ বোলিংও জয় এনে দিতে পারেনি জ্যামাইকা তালাওয়াসকে। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ বা সিপিএলে জ্যামাইকা ৬৩ রানে হার মেনেছে সেন্ট লুসিয়া জুকসের কাছে।

সাকিব বল করতে এসেছেন সেন্ট লুসিয়ার ইনিংসের অষ্টম ওভারে। নিজের প্রথম ওভারে মাত্র চার রান দিয়েছেন তিনি। দুই ওভার পর অর্থাৎ নিজের পরের ওভারেই সাফল্যের দেখা পেয়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার। ক্রমেই বিপজ্জনক হয়ে ওঠা জনসন চার্লসকে পয়েন্ট অঞ্চলে রভম্যান পাওয়েলের ক্যাচ বানিয়ে তিনিই প্রথম সাফল্য এনে দিয়েছেন জ্যামাইকাকে।

উইকেটের আশায় সাকিবকে আর বোলিং থেকে সরিয়ে দেননি জ্যামাইকার অধিনায়ক ক্রিস গেইল। তবে টানা চার ওভার করলেও আর কোনো সাফল্য পাননি বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় তারকা। যদিও সব মিলিয়ে রান খুব বেশি দেননি। নিজের তৃতীয় ওভারে দিয়েছেন ছয় রান। চতুর্থ ও শেষ ওভারে অবশ্য একটু বেশিই খরুচে ছিলেন। শেষ বলে শেন ওয়াটসন ছক্কা মারায় শেষ ওভারে তাঁর খরচ ১২ রান। তবু চার ওভারে ২৫ রানকে ভালোই বলতে এই ম্যাচের প্রেক্ষাপটে।

কিন্তু সাকিবের এত ভালো বোলিং জ্যামাইকাকে জয় এনে দিতে পারেনি। দুই ওপেনার চার্লস (৩৭ বলে ৫৯) ও আন্দ্রে ফ্লেচার (৪৯ বলে অপরাজিত ৭৪) এবং তিন নম্বরে নামা ওয়াটসনের (২০ বলে ৪৩) তিনটি ঝড়ো ইনিংসের সুবাদে তিন উইকেটে ২০৬ রানের বিশাল সংগ্রহ গড়েছে সেন্ট লুসিয়া।

জবাবে ওপেনার চ্যাডউইক ওয়ালটন (৫১ বলে ৫৪) ছাড়া আর কেউ জ্বলে উঠতে না পারায় আট উইকেটে ১৪৩ রানে থেমে গেছে জ্যামাইকার ইনিংস। ১৯তম ওভারে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই বোল্ড হয়ে গেছেন সাকিব।

হেরে গেলেও নয় ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে সিপিএলের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে জ্যামাইকা। সাকিব-গেইলদের দল শেষ চারে উত্তরণ নিশ্চিত করেছে অনেক আগেই। তাই একদিক দিয়ে তারা নিশ্চিন্ত।

এ সম্পর্কিত আরও