মুক্তির আগেই বিতর্ক তৈরি করেছে এই বলিউড সিনেমাগুলি

প্রকাশিতঃ জুলাই ৩১, ২০১৬ at ৯:৫৭ অপরাহ্ণ

bollywood

বলিউড সিনেমাকে ঘিরে সবসময়ই বিতর্ক ভিড় করে থেকেছে। কখনও কোনও কারণে এমনিই বিতর্ক তৈরি হয়েছে, কখনও বা ব্যবসার খাতিরে ইচ্ছাকৃতভাবে বিতর্ক তৈরি করে প্রচার পাওয়ার চেষ্টা হয়েছে। কখনও সিনেমার অভিনেতা-অভিনেত্রীরা বিতর্ক তৈরি করেছেন, তো কখনও সিনেমা নিয়েই বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

কোনও সিনেমা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হলে তার প্রভাব পড়ে সিনেমার উপরে। নেতিবাচক হোক বা ইতিবাচক, সব ধরনের বিতর্কই সিনেমার ক্ষেত্রে স্বাগত। কারণ আলোচনা, সমালোচনা হলে তবেই সিনেমা হল মুখো হবেন দর্শকেরা, এই ধারণা থেকেও বিতর্ক স্বাভাবিকভাবেই গজিয়ে ওঠে।

এখন সিনেমা মুক্তি দিন অপেক্ষা করে বসে থাকলে হয় না। সেই দিন গিয়েছে। এখন সিনেমা মুক্তির আগেই নানা কিছু রিলিজ করা হয়। যেমন সিনেমার গান, প্রোমো বা ট্রেলার, সিনেমার পোস্টার ইত্যাদি। ফলে অনেক আগে থেকেই প্রতিযোগিতার বাজারে সিনেমা নিয়ে আগ্রহ তৈরি করতে হয়। নাহলে পিছিয়ে পড়তে হয়।

তবে সবশেষে এবং সবার উপরে থাকেন দর্শক। তারাই শেষপর্যন্ত নির্ধারণ করে দেন, কোন ছবি সফল আর কোনটা অসফল। কোন ছবিটা ভালো আর কোনটা খারাপ। দেখে নিন এমন কয়েকটি বলিউড ছবি যা মুক্তির আগেই প্রবল বিতর্ক তৈরি করেছে। অনইন্ডিয়ার প্রতিবেদন।

সুলতান : সুলতান সিনেমাটি বক্স অফিসে অসাধারণ সাফল্য পেয়েছে। তবে সিনেমা মুক্তির আগেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন সলমন খান। প্রোমোশনে এসে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এই সিনেমায় এত খাটতে হয়েছে যে দিনের শেষ নিজেকে ধর্ষিত মনে হতো। এই ঘটনার পরই প্রবল বিতর্ক তৈরি হয়।

উড়তা পাঞ্জাব : পাঞ্জাবের ড্রাগস পাচারের উপরে তৈরি এই সিনেমাটি মুক্তির আগেই প্রবল বিতর্কের মুখে পড়ে। সেন্সর বোর্ড এর অনেকগুলি দৃশ্য কেটে দেয়। যা নিয়ে আদালতে যান প্রযোজকেরা। পরে অবশ্য নামমাত্র কাট করার পরই মুক্তি পায় সিনেমাটি।

দিলওয়ালে : দিলওয়ালে মুক্তির আগে নিজের জন্মদিনে ভারতে বেড়ে চলা অসহিষ্ণুতা বিতর্কে মুখ খুলেছিলেন শাহরুখ। যা নিয়ে প্রবল বিতর্ক তৈরি হয়।

বাজিরাও মস্তানি : বাজিরাও মস্তানির গান ‘পিঙ্গা’ মুক্তি পাওয়ার পরই বিতর্ক তৈরি হয়। বাজিরাওয়ের পরিবার নানা কিছু নিয়ে আপত্তি তুলে সমালোচনা করে পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালীকে।

বজরঙ্গী ভাইজান : হিন্দু ভাবাবেগে সিনেমার নামটি ধাক্কা দিচ্ছে, ফলে নাম বদলের দাবিতে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও বজরঙ্গ দল সলমনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখায়।

গোলিও কি রাসলীলা রাম-লীলা : প্রথমে সিনেমার নাম ছিল রামলীলা। পরে তা নিয়ে মামলা হওয়ায় নাম বদলে হয় ‘গোলিও কি রাসলীলা রাম-লীলা’।

পিকে : হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও বজরঙ্গ দল সিনেমাটি নিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। যদিও সব কিছুকে ছাপিয়ে ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে সবচেয়ে সফল ছবির তালিকায় একেবারে উপরে রয়েছে এই ছবি।

ওএমজি : ধর্মীয় উসকানির অভিযোগে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর ফিল্ম বোর্ড সিনেমাটি ব্যান করে দেয়। ফলে ৪ কোটি টাকা ক্ষতি হয় প্রযোজক সংস্থার।

মাদ্রাজ কাফে : সিনেমায় এলটিটিই ক্যাডারদের জঙ্গি হিসাবে দেখানো হয়েছে, ফলে সিনেমাটি তামিল বিরোধী বলে একটি গোষ্ঠী বিক্ষোভ দেখায়।

এমএসজি : সিনেমায় অভিনয় করা রাম রহিমকে নিয়ে তীব্র বিতর্ক হয়। প্রথমে সিনেমাটি ব্যান করে দেওয়া হলেও পরে ২০১৫ সালে এটি মুক্তি পায়।

এ সম্পর্কিত আরও