Mountain View

বাড়তি কর আদায়ে ঢাকার দুই মেয়রের প্রস্তাব

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৩, ২০১৬ at ১০:৪২ অপরাহ্ণ

রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) আরোপ করা আয়কর, ভ্যাট কিংবা শুল্কের ওপর উপকর হিসেবে বাড়তি ১০ শতাংশ হারে করারোপ করতে চায় ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন।

আজ বুধবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সঙ্গে এক অংশীদারি সভায় সিটি মেয়ররা এ প্রস্তাব দেন। এ জন্য এনবিআরের সহযোগিতা চান তাঁরা। সেগুনবাগিচার এনবিআর সম্মেলন কক্ষে এ সভায় সভাপতিত্ব করেন এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান।

দুই মেয়র বলেছেন, স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইনের আওতায় এ ধরনের কর নেওয়ার সুযোগ আছে। এ সময় তাঁরা আইনের কোন ধারায় এ ধরনের কর নেওয়ার সুযোগ আছে, তা তুলে ধরেন।

২০০৯ সালের স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইনের ৮২ ধারায় করপোরেশনকে ২৬টি খাতে কর, উপকর, রেট টোল ও মাশুল আরোপের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। এ ধারা অনুযায়ী, নগরীতে ভোগ, ব্যবহার বা বিক্রির জন্য পণ্য আমদানির ওপর কর আরোপ করতে পারবে করপোরেশন। নগরে উৎপাদিত পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রেও কর বসাতে পারবে। এ ছাড়া সরকার কর্তৃক আরোপিত করের ওপর উপকর বসানোর ক্ষমতাও দেওয়া হয়েছে। নগরে পণ্য আমদানি বলতে বিদেশ থেকে পণ্য আমদানি, নাকি সিটি করপোরেশন এলাকার বাইরে থেকে পণ্য আনা—তা আইনে পরিষ্কার করা হয়নি।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক বলেন, নাগরিকদের যথাযথ সেবা দিতে এখন বাড়তি অর্থ প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। তাই কোথায় কোথায় রাজস্ব আদায়ের সুযোগ আছে, তা খুঁজতে হচ্ছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, এ শহরের জন্য ভোগ্যপণ্য আমদানি করলে কিংবা এ শহর থেকে পণ্য রপ্তানি করলে যে রাজস্ব আদায় হবে, তা নগরবাসীর জন্য খরচ করা হবে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View