মাত্র দুই ঘণ্টার খেলায় ক্রিকেটে কত কত রেকর্ড!

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৫, ২০১৬ at ৮:৩০ অপরাহ্ণ

rongona

সূর্যটা কি আজ একটু বাড়তি তেজই ছড়াচ্ছে গলে? না হলে হঠাৎই এমন ভয়ংকর রূপে কীভাবে দেখা দিলেন শ্রীলঙ্কান স্পিনাররা! স্বাগতিকদের বোলিং তোপে ছিন্নভিন্ন হয়ে গেল অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইনআপ। অস্ট্রেলিয়ার বোলাররাও ছেড়ে কথা বলেননি, শ্রীলঙ্কা ব্যাটিংয়ে নামার পর তাঁরাও দেখাচ্ছেন নিজেদের রুদ্ররূপ।

মধ্যাহ্নবিরতির আগে পুরো ২৭ ওভারও খেলা হয়নি, অথচ এর মধ্যেই ১১ উইকেটের পতন হয়েছে। রান? মাত্র ৮৩! এ রকম বোলিং আর দৈন্য ব্যাটিংই বাধ্য করল দিনের শুরুতেই ক্রিকেটের রেকর্ড বইটি একটু উল্টে পাল্টে দেখতে—

* ১০৬—শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার সর্বনিম্ন স্কোর। ২০০৪ সালে ক্যান্ডিতে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১২০ রানে অলআউট হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। সে টেস্টে বিজয়ী দল? অস্ট্রেলিয়া!
* ৮—প্রথম সেশনে অস্ট্রেলিয়ার হারানো উইকেট। তবে নিজেদের রেকর্ড ভাঙতে পারেনি তারা। ১৮৮৮ সালে ওল্ড ট্রাফোর্ড টেস্টের দ্বিতীয় দিনের মধ্যাহ্নবিরতির আগে ১৮ উইকেট পড়েছিল অস্ট্রেলিয়ার!
* ২য়—শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করলেন রঙ্গনা হেরাথ। এর আগে নুয়ান জয়সা ২০০০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে শ্রীলঙ্কার প্রথম হ্যাটট্রিক করছিলেন।
* ২য়—দ্বিতীয় বাঁহাতি অর্থোডক্স বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করলেন হেরাথ। ১৮৯২ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেই হ্যাটট্রিক করেছিলেন জনি ব্রিগস।
* ৩য়—হ্যাটট্রিক করা তৃতীয় বাঁহাতি স্পিনার হেরাথ। গ্রিগসের পর লিন্ডসে ক্লাইন ১৯৫৮ সালে হ্যাটট্রিক করেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। তবে এই অস্ট্রেলিয়ান ছিলেন চায়নাম্যান বোলার।
* ১ম—ডিআরএস পদ্ধতির মাধ্যমে পাওয়া প্রথম হ্যাটট্রিক এটি।
* ৯ম—অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হ্যাটট্রিকের সংখ্যা। যেকোনো দলের বিপক্ষে সর্বোচ্চ, শুধু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৬টি হ্যাটট্রিক হয়েছে।
* ৩৮ বছর ১৩৯ দিন—আজ হেরাথের বয়স। সবচেয়ে বেশি বয়সীর হ্যাটট্রিকের রেকর্ড এটি। এই রেকর্ড এত দিন ছিল ইংল্যান্ডের টম গডার্ডের। ১৯৩৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে হ্যাটট্রিকের সময় এই ইংলিশ বোলারের বয়স ছিল ৩৮ বছর ৮৭ দিন।

এ সম্পর্কিত আরও