Mountain View

ময়মনসিংহে শেখ জামাল-চ. আবাহনীর খেলা গোলশূন্য ড্র

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৫, ২০১৬ at ৭:৫৩ অপরাহ্ণ

khela

ঘরোয়া ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের (বিপিএল) ময়মনসিংহ পর্বের উদ্বোধনী ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনী ও শেখ জামালের মধ্যকার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছে। ফলে, পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়তে হয় দু’দলকে।

আজ (শুক্রবার) ৫ আগস্ট ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়ামে চট্টগ্রাম আবাহনী ও শেখ জামালের মধ্যকার ম্যাচটি শুরু হয় বিকেল সাড়ে চারটায়।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় পর্বের এই ম্যাচের প্রধমার্ধে কোনো দলই গোল আদায় করে নিতে পারেনি। তবে, দর্শক ভরা স্টেডিয়ামে দুর্দান্ত খেলা উপহার দিতে থাকেন দুই দলের ফুটবলাররা।

মাঠে দর্শক পরিপূর্ণ থাকলে যে খেলার মান পরিবর্তন হয়ে যায় তা আবার প্রমান করলো এই ময়মনসিংহের দর্শকরা।একে অন্যের উপর চাপ বজায় রেখেই মাঝমাঠের বল দখলের লড়াই চালিয়ে যায় দু’দল।

ম্যাচের ২০ মিনিটের পর থেকে চট্টগ্রাম আবাহনীর আক্রমণে কিছুটা ব্যাকফুটে চলে যায় শেখ জামাল। তবে, ম্যাচে ফিরতে খুব একটা সময় নেয়নি ঢাকার দলটি। মাঝমাঠের শক্তি বাড়িয়ে খেলতে শুরু করে জামাল।

ম্যাচের ৩৬ মিনিটের মাথায় চট্টগ্রাম আবাহনীর একটি দারুণ প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। জামালের গোলবারের ডান দিক থেকে ইব্রাহিমের দারুণ একটি পাস চলে আসে ডি-বক্সে। তবে, কোনো সতীর্থ না থাকায় চট্টগ্রাম আবাহনীকে গোল পাইয়ে দিতে পারেনি কেউ।

৩৮ মিনিটে সুযোগ পায় জামাল। বিদেশি তারকা ল্যান্ডিংয়ের একক প্রচেষ্টায় মেতে উঠেন দর্শকরা। দারুণভাবে দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বন্দরনগরীর দলটির ডি-বক্সে প্রবেশ করেন ল্যান্ডিং।

তবে, নিজের নিয়ন্ত্রণে বল রাখতে না পারায় লিড নিতে পারেনি শেখ জামাল।প্রথমার্ধে কোনো দল গোল না পেলে গোলশূন্য বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতির পর আবারো আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে ম্যাচ গড়ায়। খেলার ৬৬ মিনিটের মাথায় শেখ জামালের স্ট্রাইকার এমেকা ডার্লিংটনকে চট্টগ্রাম আবাহনীর চার ডিফেন্ডার মিলে ঘিরে ধরেন। তবে, এরপরও তাকে রুখতে না পেরে ইয়ামিন তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। হলুদ কার্ডও দেখতে হয় ইয়ামিনকে। ডি-বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে পাওয়া ফ্রি-কিকে গোলের দারুণ সম্ভাবনা জাগান ওয়েডসন। তার বাঁকানো শট রুখে দিয়ে আরও দারুণভাবে দলকে রক্ষা করেন চট্টগ্রাম আবাহনীর গোলরক্ষক আশরাফুল রানা।

ম্যাচের ৮৫ মিনিটে যে সহজ সুযোগটি নষ্ট করে জামাল ম্যাচ শেষে তার হতাশায় পুড়তে হচ্ছে দলটিকে। ওয়েডসনের দারুণ একটি কাটব্যাকে বল পান ফাঁকায় দাঁড়ানো ডার্লিংটন। তার সামনে কেউই ছিল না। তবে, শুধু পা লাগালেই যেখানে গোল পেয়ে যেতেন ডার্লিংটন সেখানে পা-ই ছোঁয়াতে পারেননি এই বিদেশি তারকা। ফলে, আবারো গোলবঞ্চিত হয় শেখ জামাল।

ম্যাচের বাকি সময়ে কোনো গোল না হলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে চট্টগ্রাম আবাহনী ও শেখ জামাল।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View