Mountain View

মোহাম্মদপুরে স্কুল ছাত্রী অপহৃত, উদ্ধারে গড়িমসি

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৬, ২০১৬ at ৯:৫০ অপরাহ্ণ

রাজধানীর মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরী স্কুলের ছাত্রী সানজিদা আক্তার স্বর্ণা অপহৃত হয়েছে। গত বিশ দিন ধরে তার কোন সন্ধান না পেয়ে তার বাবা-মা এখন পাগল প্রায়। বিভিন্ন স্থানে সন্ধান করে তার কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। মেয়েটির বাবা আবদুস সামাদ এ ব্যাপারে মোহাম্মদপুর থানায় একটি মামলা করলেও পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধারে গড়িমসি করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।q

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত ১৭ জুলাই সকাল সাতটায় মেয়েটি তার মায়ের সাথে ইকবাল রোডের প্রিপারেটরী স্কুলে যায়। বেলা সাড়ে ১১ টায় ক্লাস শেষে বাসায় ফেরার জন্য রিকশার জন্য অপেক্ষা করছিল। এসময় সে অপহৃত হয়।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার উপ-পরিদর্শক রবিউল ইসলাম জানান, মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে দেখা যায় আজিজ মহল্লার বাসিন্দা বখাটে যুবক মারুফ আহম্মেদ ভূঁইয়া ওরফে সীমান্ত তার সহযোগিদের নিয়ে মেয়েটিকে অপহরণ করেছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম রতন জানান, অপহরণের বিষয়টি জানতে পেরে আমি মেয়েটিকে উদ্ধারের চেষ্টা করেছি। এসময় জানতে পারি স্বর্ণা নামের মেয়েটির বয়স মাত্র ১৬ বছর। আর যে ছেলেটি তাকে অপহরণ করেছে তার বয়স ১৭ বছর। দুজনেই নাবালক। এ ঘটনায় নারী নির্যাতন আইনে থানায় মামলা হওয়ার কারণে আমি আর বেশি দূর এগুতে পারিনি। বিষয়টি এখন পুলিশ দেখছে।

স্থানীয়রা জানান, বখাটে যুবক সীমান্তের সঙ্গে এলাকার পুলিশ সোর্স ওয়াসিম ও বেবীর সুসম্পর্ক। বেবীই মেয়েটিকে জিম্মি করে রেখেছে। আর বেবী ও ওয়াসিম যেহেতু পুলিশের সোর্স তাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার বিষয়টি নিয়ে আগ্রহ কম।

এ বিষয়ে সানজিদা বেবী জানান, ছেলে-মেয়ে দুজনেই প্রেম করে বিয়ে করেছে। যেহেতু আসামিদের একজন আমার বাড়ির ভাড়াটে তাই আমি আসামিদের পক্ষ নিয়ে থানা পুলিশ ও স্থানীয় কাউন্সিলরের কাছে গিয়েছি। কাউন্সিলরের সামনে মেয়ের বাবাকে বলেছি আপনার মেয়ে আমার কাছে আছে। মনে করবেন ও তার মায়ের বুকেই আছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View