ঢাকা : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, শুক্রবার, ৭:৩২ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

দেশের উন্নয়ন হলেও আদিবাসীরা বঞ্চিত: সন্তু লারমা

son


বাংলাদেশের উন্নয়ন হলেও আদিবাসীদের তেমন কোনও উন্নয়ন হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সভাপতি শ্রী জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা)। রোববার (৭ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘আদিবাসীদের শিক্ষা, ভূমি ও জীবিকার অধিকার’ শীর্ষক এক সংলাপে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

সংলাপটির আয়োজন করে আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় কমিটি ককাস। আর সহযোগিতায় ছিল আরডিসি, আইএলও এবং ইউএনডিপি। আদিবাসীর এই নেতা বলেন, ‘দেশের বিপুল উন্নয়ন হয়েছে। তবে আমাদের আদিবাসীদের তেমন ‍উন্নয়ন হয়নি। আর বর্তমান শাসক গোষ্ঠি বিভিন্নভাবে তাদের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড করে যাচ্ছে। কিন্তু আদিবাসীরা ঠিক পূর্বের অবস্থায় আছে।’

আদিবাসী সম্প্রদায়কে কখনও মানুষ হিসেবে দেখা হয়নি এমন দাবি করে তিনি বলেন, ‘আমাদের আদিবাসীরা কি এই দেশের উন্নয়নে কোনও ভূমিকা রাখেনি? আদিবাসীরা কি বাংলাদেশ রক্ষায় মুক্তিযুদ্ধ করেনি?’ আদিবাসীদের সম্মান বা কোনও মর্যাদা নেই এমন মন্তব্য করে সন্তু লারমা বলেন, ‘আমরা জীবনকে উজ্জীবিত করতে এবং সম্মান নিয়ে বেঁচে থাকতে চাই। গণতন্ত্রশীল একটি দেশে মাথা উঁচু করে বাঁচতে চাই। তবে আজকে সময়ের আর্বতনে দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে আদিবাসীদের এসব স্বপ্ন।’

বর্তমানে আদিবাসী সম্প্রদায়ের অস্তিত্ব বিলীনের পথে উল্লেখ করে সন্তু লারমা বলেন, ‘বাংলাদেশ স্বাধীনের ৪৫ বছর পার হলেও এখনও আদিবাসীদের জীবনমানের পরিবর্তন হয়নি। যার ফলে ক্রমশই আদিবাসীরা ধ্বংসের দিকে ধাবিত হচ্ছে।’

এ সময় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘দীর্ঘ সময় ধরে সেনা শাসনে জর্জরিত আদিবাসীরা। আমরা দীর্ঘ দিন ধরে সেনা শাসনের দ্বারা বিভিন্নভাবে অত্যাচারের শিকার হয়েছি। এখন যতই দিন যাচ্ছে, পার্বত্য অঞ্চল যেন ততই ভয়ঙ্কর অঞ্চলে পরিণত হচ্ছে। এই সরকার যদি গণমুখি হয়, তাহলে আদিবাসীদের কেন এই অবস্থা? তাই সরকার যদি এভাবে তার শাসন ব্যবস্থা চালাতে থাকে, তাহলে ভবিষ্যতে আদিবাসীরা বিলীন হয়ে যাবে।’

আদিবাসী সম্প্রদায় বন রক্ষা করে চলেছে এমন দাবি করে তিনি বলেন, ‘আপনারা মনে রাখবেন, আমরা ছাড়া এই বন রক্ষা করা কোনভাবেই সম্ভব নয়। এ দেশে বর্তমানে ৩০ লাখ আদিবাসী রয়েছে, যাদের বঞ্চনার মাত্রা শিক্ষা থেকে শুরু করে সর্বস্তরে।’

সংলাপে জাসদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান বলেন, ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন হচ্ছে, তবে আদিবাসীদের তেমন উন্নয়ন হচ্ছে না। আজকে হাতে হাত রেখে আদিবাসীদের উল্লাস করার কথা। সেখানে তারা আজ বিভিন্ন ধরনের বঞ্চনার শিকার হচ্ছে।’

এ সময় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘আদিবাসীরা প্রতি মুহূর্তেই বেঁচে থাকার জন্য বিভিন্নভাবে সংগ্রাম করে যাচ্ছে। যা কখনও কাম্য নয়। তাই এদের বিষয়ে আজকে সকলকেই সোচ্চার হতে হবে।’

ক্রিশ্চিয়ান এইডের কান্টি ডিরেক্টর বলেন, ‘এই আদিবাসীরা যদি বাঁচে, তাহলে আমাদের বনও বাঁচবে। তারা যদি না বাঁচে, তাহলে বাংলাদেশের বঞ্চালকে বাঁচানো সম্ভব হবে না।’

দিনের পর দিন আদিবাসীদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আজকে আদিবাসীদের ভূমি জোরপূর্বক দখল করা হচ্ছে। তাই যদি এমন অবস্থা বিরাজ করে, তাহলে বঞ্চালকে কিভাবে রক্ষা করবে তারা।’

আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় কমিটি ককাসের আহ্বায়ক, সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, ককাসের সদস্য সাংসদ খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সংসদ সদস্য ও ককাসের সদস্য মৃণাল কান্তি দাস, আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় ককাসের চেয়ারপার্সন প্রফেসর ড. মেসবাহ কামাল ও ককাসের টেকনোক্র্যান্ট সদস্য সঞ্জীব দ্রং প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

বান্দরবানে জনপ্রিয় হচ্ছে ভাসমান রেস্টুরেন্ট

বি.কে বিচিত্র। বান্দরবান প্রতিনিধিঃবান্দরবান সদরে সাঙ্গু নদীর তীরে গড়ে ওঠেছে ভাসমান রেস্টুরেন্ট ” Flora cruise …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *