Mountain View

উইকিলিকসের দাবি আইএস-এর কাছে অস্ত্র সরবরাহ করেছিলেন হিলারি (ভিডিও)

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৯, ২০১৬ at ৯:৩২ অপরাহ্ণ

isis

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন হিলারি ক্লিনটন যে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএসসহ ইসলামি জিহাদিদের অস্ত্র সরবরাহের সঙ্গে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন সে ব্যাপারে প্রমাণ পাওয়ার দাবি করেছেন উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ।

হিলারি ক্লিনটনের ফাঁস হওয়া ইমেইল থেকে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে ডেমোক্র্যাসি নাউকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন দাবি করেন তিনি। অ্যাসাঞ্জের দাবি, লিবিয়ায় গাদ্দাফি সরকার ও পরবর্তীতে সিরিয়ায় আসাদ সরকারকে উৎখাতের চেষ্টায় অস্ত্রগুলো সরবরাহ করা হয়েছিল; যা পরে ইসলামি জিহাদিদের হাতে পৌঁছেছে।

একের পর এক মার্কিন গোপন নথি ফাঁস করে বিশ্বজুড়ে আলোচনা তৈরিকারী গণমাধ্যম উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ জানিয়েছেন, হিলারির ফাঁস হওয়া ইমেইলগুলোর মধ্যে ১৭০০রও বেশি ইমেইলে লিবিয়া প্রসঙ্গ উঠে এসেছে।

সংবাদমাধ্যম দ্য ডুরানের প্রতিবেদনে বলা হয়, পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে হিলারি ক্লিনটন যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি অস্ত্র কাতারে চালানের অনুমতি দিয়েছিলেন। আর এ কাতার  মুসলিম ব্রাদারহুড এবং লিবিয়ার বিদ্রোহীদের প্রতি বন্ধুসুলভ দেশ হিসেবে পরিচিত।

অ্যাসাঞ্জের দাবি, লিবিয়ার গাদ্দাফি সরকারকে উৎখাত করার চেষ্টায় ওই অস্ত্র সরবরাহের অনুমতি দিয়েছিলেন হিলারি। পরে সে অস্ত্র আবার সিরিয়ার আসাদ সরকারকে উৎখাতের জন্য সেদেশে সরবরাহ করা হয়েছিল। মূলত এ অস্ত্রগুলো আল কায়েদা ও আইএসসহ জঙ্গি সংগঠনগুলোর হাতে পৌঁছায়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন হিলারি ক্লিনটনের ব্যক্তিগত সার্ভার থেকে আদান-প্রদান করা ৩০ হাজারেরও বেশি ইমেইল গত মার্চ মাসে ফাঁস করে উইকিলিকস। কেন উইকিলিকস হিলারির ইমেইল ফাঁস করেছে সে ব্যাপারে ডেমোক্র্যাসি নাউ এর পক্ষ থেকে অ্যাসাঞ্জের কাছে জানতে চাওয়া হয়।

সেসময় তিনি দাবি করেন এর মধ্য দিয়ে যতটা না হিলারির ভূমিকাকে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে তার চেয়েও  বেশি মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কিভাবে চলে তা সামনে আনার চেষ্টা করা হয়েছে।

লিবিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানকে সর্বনাশা হিসেবে উল্লেখ করে জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ বলেন, ‘গাদ্দাফি সরকারের পতনের মধ্য দিয়ে লিবিয়ার একটি বিশাল অংশজুড়ে আইএস এর উত্থান হয়েছিল। সেখান থেকে হিলারির অনুমোদনসাপেক্ষে সিরিয়ায় আইএসসহ অন্য জিহাদিদের কাছে অস্ত্র সরবরাহ হয়েছিল। আর এগুলো সেইসব ইমেইলে পাওয়া গেছে। আমরা হিলারি ক্লিনটনের যেসব ইমেইল ফাঁস করেছি তার মধ্যে ১৭০০রও বেশি ইমেইলে কেবল লিবিয়ার প্রসঙ্গেরই উল্লেখ আছে।’

বিভিন্ন সময়ে হিলারির বিরুদ্ধে আইএসকে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ উঠলেও বরাবরই তিনি তা অস্বীকার করেছেন।  বেনগাজিতে সন্ত্রাসী হামলার পর ২০১৩ সালে সরকারিভাবে দেওয়া সাক্ষ্যে অস্ত্র চালানের ব্যাপারে কিছু জানার কথা অস্বীকার করেছিলেন তিনি।

মার্কিন সিনেটে হিলারি বলেছিলেন এ ব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না। তবে অ্যাসাঞ্জ দাবি করেছেন, হিলারি নিজেই এ অস্ত্র চালানের অনুমতি দিয়েছিলেন। আর তারই প্রমাণ দিচ্ছে ফাঁস হওয়া ইমেইলগুলো।

এর আগে জুলাইয়ে ডেমোক্র্যাট দলের কর্মীদের মধ্যে আদান-প্রদান হওয়া ১৯ হাজারেরও বেশি ই-মেইল ফাঁস করে উইকিলিকস। সেসময় বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বার্নি স্যান্ডার্স যেন প্রার্থিতা না পান সে ব্যাপারে আগে থেকেই সব ধরনের আয়োজন সম্পন্ন করে রেখেছিল ডেমোক্র্যাট ন্যাশনাল কমিটি। কীভাবে স্যান্ডার্সকে রুখে দিয়ে আরেক ডেমোক্র্যাট প্রার্থিতা প্রত্যাশী হিলারি ক্লিনটনের মনোনয়ন নিশ্চিত করা যায় সে ব্যাপারে উঠে পড়ে লাগে তারা।

স্যান্ডার্সকে পরাজিত করার ছক কষতে ডেমোক্র্যাট ন্যাশনাল কমিটির নেতারা নিজেদের মধ্যে ইমেইল চালাচালি করতে থাকেন।সেখানে দেখা গেছে ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কমিটির কর্মকর্তারা স্যান্ডার্স ও তার সমর্থকদের নিয়ে বিদ্রুপ করছেন, ইহুদি ধর্মের প্রতি স্যান্ডার্সের অঙ্গীকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করছেন। অথচ এ কমিটিকে নিরপেক্ষ বলে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। ইমেইলগুলোর একটিতে দেখা যায়, ডেমোক্র্যাট কমিটির কর্মীরা একে অপরের কাছে জানতে চাইছিলেন কিভাবে দক্ষিণাঞ্চলীয় ভোটারদের চোখে বার্নি স্যান্ডার্সকে দুর্বল করে দিতে তার ধর্মবিশ্বাসকে ব্যবহার করা যায়। আরেকটি ইমেইলে দেখা গেছে, এক অ্যাটর্নি কমিটিকে পরামর্শ দিচ্ছেন কী করে স্যান্ডার্সের ক্যাম্পেইনে ওঠা অভিযোগ থেকে হিলারিকে রক্ষা করা যায়।

এ সম্পর্কিত আরও