Mountain View

ঢাকায় ‘সুনামগঞ্জ সমিতি’র নির্বাচন- প্রচারণা চলছে সুনামগঞ্জেও

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১০, ২০১৬ at ১২:৫৪ অপরাহ্ণ

শাহ জুনায়েদ মোঃ সৃজন,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ রাজধানীতে অবস্থানরত সুনামগঞ্জবাসীর বৃহৎ সংগঠন সুনামগঞ্জ সমিতি ঢাকার নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত প্রায় ১১’শ ভোটার। নির্বাচনী প্রচারণা চলছে জোরে-শোরে। মুঠোফোনে এবং সরাসরি বাসায় গিয়ে ভোট চাচ্ছেন দুই প্যানেলের ৫৪ জন প্রার্থী। সকলেই ‘অবহেলিত জনপদ’ উল্লেখ করে সুনামগঞ্জ জেলার শিক্ষা-দীক্ষাসহ সকল উন্নয়নে ভূমিকা রাখারও প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।

এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বি দুই প্যানেলের প্রার্থী ও স্বজনরা এবারই প্রথম সুনামগঞ্জে নিজেদের প্যানেলের পক্ষে ভোট দেবার জন্য মুঠোফোনে অনেকের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন, আবার কেউ কেউ সরাসরি এসে বিশিষ্টজনদের সঙ্গে দেখা করে বলছেন,‘আপনার পরিচিত ভোটারদের দয়া করে আমাদের প্যানেলে ভোট দেবার কথা বলবেন’। শক্তিশালী দুই প্যানেলের একটি হচ্ছে- ডা. সৈয়দ উমর খৈয়াম ও ডা. মো. আবুল কালাম চৌধুরী’র নেতৃত্বে এবং অপর প্যানেল হচ্ছে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আকবর হোসেন ও অ্যাড. মো. সুজা আল ফারুকের নেতৃত্বে। ডা. সৈয়দ উমর খৈয়ামের গ্রামের বাড়ী জগন্নাথপুরে। তিনি সুনামগঞ্জ সমিতির সাবেক সভাপতি এবং সাবেক যুগ্ম সচিব। ডা. মো. আবুল কালাম চৌধুরী’র বাড়ী শাল্লা উপজেলায়।

তিনি পিজি হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ এবং এসোসিয়েট প্রফেসর। এই প্যানেলের অন্য প্রতিদ্বন্দ্বিদের মধ্যে সহ সভাপতি জগন্নাথপুর উপজেলার বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত এডিশনাল এসপি রওনকুল হক চৌধুরী, মধ্যনগরের বাসিন্দা এডিশনাল ডিআইজ (ডিবি) মো. আব্দুল বাতেন ও সুনামগঞ্জের বাসিন্দা ম্যাজিক কিডস টিভি’র সিইও বিশিষ্ট অভিনেতা ফজলুল কবীর তুহিন। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিরাইয়ের বাসিন্দা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার নেছার আলম মুকুল, একই উপজেলার বাসিন্দা তিতাস গ্যাসের ডেপুটি ম্যানেজার আলী মুর্শেদ খান, কোষাধ্যক্ষ একই উপজেলার বাসিন্দা এমএফজি ইন্ডাষ্ট্রিজ লি.’এর অ্যাকাউন্টেট অশ্বিনী কুমার বৈষ্ণব, সাংগঠনিক সম্পাদক তাহিরপুরের বাসিন্দা ‘পরিবর্তনের জন্য চাই শিক্ষা’এর আহ্বায়ক এএইচএম হুমায়ুন মল্লিকসহ ২৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বি এই প্যানেলে লড়ছেন। 13936884_624725617706485_1698220318_n

এই প্যানেলের সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে আছেন সুনামগঞ্জের মেয়ে অ্যাড. কানিজ রেহনুমা রব্বানী ভাষা। একইভাবে আকবর হোসেন ও অ্যাড. মো. সুজা আল ফারুকের নেতৃত্বাধীন প্যানেলের অপর প্রতিদ্বন্দ্বিরা হচ্ছেন- দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল খালেক, শাল্লা উপজেলার বাসিন্দা ব্যাবসায়ী ক্ষিরোদ রঞ্জন রায় ও মধ্যনগরের বাসিন্দা ব্যবসায়ী শামসুদ্দিন আজহার।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার বাসিন্দা ব্যবসায়ী মোজাম্মেল হোসেন চৌধুরী মেনন, কোষাধ্যক্ষ দিরাইয়ের বাসিন্দা সমাজকর্মী এখলাছুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক তাহিরপুরের বাসিন্দা আরটিভির সিনিয়র এক্সিকিউটিভ (ব্রডকাস্ট) বিজন রায়সহ ২৭ জনের প্যানেল। ডা. সৈয়দ উমর খৈয়াম ও ডা. মো. আবুল কালাম চৌধুরী’র নেতৃত্বাধীন প্যানেলের পরিচিতি সভা সোমবার রাজধানীর পাবলিক লাইব্রেরীর সেমিনার হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর আগে গত শনিবার আকবর হোসেন ও অ্যাড. মো. সুজা আল ফারুকের নেতৃত্বাধীন প্যানেলের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুই পক্ষই ভোট আদায়ের জন্য নানা কৌশল ও প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।

সকল প্রার্থীর প্রতিশ্রুতিতেই রয়েছে সুনামগঞ্জের উন্নয়নের নানা আকাঙ্খার কথা। আকবর ও ফারুকের নেতৃত্বাধীন প্যানেলের সাংগঠনিক সম্পাদক বিজন রায় বলেন,‘হাজার হাজার সুনামগঞ্জবাসী আমরা কর্মের বা ব্যবসায়িক প্রয়োজনে ঢাকায় রয়েছি। সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বিশেষ করে ৩২ জন সচিব থেকে উপ সচিব পর্যায়ের ব্যক্তি সুনামগঞ্জের রয়েছেন। আমরা সবাইকে একত্র করতে চাই। এক সময় সুনামগঞ্জ সমিতি ছোট ছিল।

সর্বশেষ সদস্য সংখ্যা ছিল ৩০০ জন। আমরা এটিকে বড় করেছি, আরও বড় এবং ভাল করতে চাই। সংগঠন যখন বড় হবে। সকলে মিলে যে কোন বড় কাজ করতে পারবো। সুনামগঞ্জে মেডিকেল কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করতে কাজ করার জন্য আমাদের প্যানেলকে সমিতির সদস্যরা ভোট দেবেন বলেই মনে করছি আমি’। উমর খৈয়াম ও আবুল কালাম চৌধুরী’র নেতৃত্বাধীন প্যানেলের সাংগঠনিক সম্পাদক এএইচ এম হুমায়ুন মল্লিক বলেন,‘সুনামগঞ্জের উন্নয়নে সুনামগঞ্জ সমিতি হবে একটি শক্তিশালী প্রেসারগ্রুপ। এজন্যই দক্ষ-অভিজ্ঞ এবং সক্রিয়দের নির্বাচিত করতে হবে। সুনামগঞ্জে জালালাবাদ এসোসিয়েশন জালালাবাদ মেডিকেল কলেজ করতে চায়।

এই উদ্যোগে সহযোগিতার জন্য কাজ করবে নির্বাচিত ঢাকাস্থ সুনামগঞ্জ সমিতি। এছাড়া সুনামগঞ্জ সমিতির ২০ লাখ টাকার তহবিল রয়েছে। এটি বাড়িয়ে ঢাকায় সুনামগঞ্জ সমিতির নিজস্ব অফিস করার উদ্যোগও নেওয়া হবে। শিক্ষা-দীক্ষার কল্যাণে নানামূখী কর্মসূচী রয়েছে উমর খৈয়াম- আবুল কালাম চৌধুরী’র নেতৃত্বাধীন প্যানেলের’। এজন্যই ভোটাররা এই প্যানেলের প্রার্থীদের জয়ী করবেন বলে আশাবাদী তিনি।

আগামী ১২ আগস্ট সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত রাজধানীর পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে এই নির্বাচনে ১১২০ জন ভোটার ভোট দিয়ে নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন। ড. মো. মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বাধীন ৩ সদস্যের নির্বাচন কমিশন, এই নির্বাচন পরিচালনা করবেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View