Mountain View

গুলশানে হামলায় নিহতসহ ১৮ জঙ্গির ব্যাংক হিসাব জব্দের নির্দেশ

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১০, ২০১৬ at ১০:৫০ অপরাহ্ণ

1820160810205604

গুলশান, শোলাকিয়া ও কল্যাণপুরে হামলার সময় নিহত ১৮ জঙ্গি এবং এসব হামলার মাস্টারমাইন্ড হিসেবে সন্দেহভাজন সেনাবাহিনী থেকে বহিষ্কৃত মেজর সৈয়দ মো. জিয়াউল হক ও তামিম চৌধুরীর ব্যাংক হিসাব জব্দ করতে দেশের সব ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

আজ (বুধবার) ১০ আগস্ট বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক গোয়েন্দা শাখা বা বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) থেকে ব্যাংক হিসাব জব্দের নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে।

এই নির্দেশনায় জঙ্গি তৎপরতার সঙ্গে জড়িতদের আত্মীয়-স্বজনের ব্যাংক হিসাবও খতিয়ে দেখতে ব্যাংকগুলোকে বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, নিজেদের শাখাগুলোতে আইন-কানুন সঠিকভাবে পরিপালন হচ্ছে কি না- তা যাচাই করবে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো। আগামী অক্টোবরের মধ্যে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগে জমা দিতে হবে।

এ বিষয়ে বিএফআইইউ’র মহাব্যবস্থাপক দেবপ্রসাদ দেবনাথ বলেন, যেসব জঙ্গির খবর সংবাদমাধ্যমে এসেছে, ব্যাংকগুলোকে সেইসব জঙ্গির সব হিসাব জব্দ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে জঙ্গিদের সংখ্যা ১৮ বা বেশিও হতে পারে। এছাড়া জঙ্গি অর্থায়ন বিষয়ে অনুসন্ধান করতে গিয়ে এর আগেও সন্দেহভাজনদের ব্যাংক হিসাব বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছিল।

এদিকে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সন্ত্রাসী বা সন্ত্রাসী সংগঠনের নামে ব্যাংকে কোনো হিসাবে পাওয়া গেলে- তা তাৎক্ষণিক স্থগিতের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক নির্দেশ দিয়েছে।

তবে কোন সংবাদমাধ্যমকে প্রাধান্য দেওয়া হবে- তা ব্যাংকগুলো নিজ বিবেচনায় নির্ধারণ করবে। তবে প্রচলিত আইনে যারা সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত, তারা সবাই এ আইনের আওতায় পড়বেন।

সাম্প্রতিক অস্থিরতার পরিপ্রেক্ষিতে এ বছরের ১৯ ও ২০ জুলাই সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের নিয়ে বৈঠক করে বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহারের মাধ্যমে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের ব্যবহারে অর্থ স্থানান্তর ঠেকাতে এমডিদের সজাগ থাকার নির্দেশ দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক। পাশাপাশি রেমিট্যান্সের প্রকৃত সুবিধাভোগীর তথ্য যাচাইয়ের নির্দেশও দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।

ওই সভার পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাংকগুলোকে সন্ত্রাসীদের ব্যাংক হিসাব তাৎক্ষণিক বন্ধের এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View