Mountain View

শোকদিবসে কোনো নিরিপত্তা ঝুঁকি নেই: ডিএমপি

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১৩, ২০১৬ at ২:১৮ অপরাহ্ণ

জাতীয় শোকদিবসে বাড়তি কোনো নিরিপত্তা ঝুঁকি নেই বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। তিনি বলেন কোন ধরনের নাশকতার আগাম কোন তথ্য গোয়েন্দাদের হাতে নেই। ক্ষুদ্র একটি গোষ্ঠী দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে। এ জন্য অন্যবারের চেয়ে এবারের জাতীয় শোক দিবসে একটু বেশি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু জাদুঘরের সামনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে ডিএমপি কমিশনার এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ভিভিআইপিরা প্রথমে শোক জানাবেন। এসময় জনসাধারণ কলাবাগান মাঠে অবস্থান করবেন। এরপর ভিআইপিরা শ্রদ্ধা জানাতে বনানী কবরস্থানে যাবেন। পরে জনসাধারণরা বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে যেতে পারবেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, মিরপুর রোডের সাইন্স ল্যাব ক্রসিং হয়ে রাসেল স্কয়ার দিয়ে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ অভিমুখে যে সকল যানবাহন গমন করে সেগুলো সাইন্সল্যাব থেকে বামে মোড় নিয়ে সিটি কলেজ, সীমান্ত স্কয়ার, ঝিগাতলা, ধানমন্ডি ২৭ নম্বর হয়ে গন্ত্যবে যাবে।

মিরপুর রোডের মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ হয়ে রাসেলস্কয়ার দিয়ে নিউমার্কেট অভিমুখে যেসকল যানবাহন গমন করে সেগুলোকে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ থেকে বামে মোড় নিয়ে খামারবাড়ি-ফার্মগেট-সোনারগাঁও- হয়ে ভিআইপি রোডে যেতে হবে।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, এই স্থানগুলো সিসি ক্যামেরা দিয়ে পর্যবেক্ষণ করা হবে। থাকবে ডগস্কয়াড, আর্চওয়ে, মেটাল ডিটেক্টর ও বোমা ডিসপোজাল ইউনিট। বনানী কবরস্থান এলাকায়ও একই ধরণের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যে সকল রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ থাকবে: ধানমন্ডি ৩২ নম্বর ব্রিজের দক্ষিণ পাশ ১৩/এ রাস্তা, ধানমন্ডি ৩২ নম্বর ব্রিজের উত্তর পাশ, রোড নম্বর-১১ এবং রোড নম্বর-১৩। সাইন্স ল্যাব ক্রসিং থেকে ধানমন্ডি ২৭ নম্বর রোডের পূর্ব মাথা পর্যন্ত এবং মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ থেকে সাইন্স ল্যাব পর্যন্ত। পান্থপথ ক্রসিং থেকে রাসেল স্কয়ার পর্যন্ত।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি অ্যান্ড প্রসিকিউশন) মো. দিদার আহমেদ, (ক্রাইম অ্যান্ড) অপস শেখ মুহাম্মদ মারুফ হাসান, (কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল) মো. মনিরুল ইসলাম, যুগ্ম কমিশনার (ক্রাইম) কৃষ্ণপদ রায়, গণমাধ্যম শাখার উপকমিশনার মো. মাসুদুর রহমান, অতিরিক্ত উপকমিশনার মুহাম্মদ ইউসুফ আলী ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ইউনিটের অতিরিক্ত উপকমিশনার মো. ছানোয়ার হোসেন।

এ সম্পর্কিত আরও