ঢাকা : ১৮ অক্টোবর, ২০১৭, বুধবার, ১০:৪৬ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / আইএস নিয়ে ১৮০ ডিগ্রি ডিগবাজি মারলেন ট্রাম্প

আইএস নিয়ে ১৮০ ডিগ্রি ডিগবাজি মারলেন ট্রাম্প

প্রকাশিত :

trump

ফের ডিগবাজি দিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টি মনোনীত প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। মাত্র দু’দিনের মাথায় নিজের অবস্থান থেকে প্রায় ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেলেন তিনি। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের প্রতিষ্ঠাতা বলে তোপ দেগে এখন বলছেন তিনি মজা করেছেন!

এ নিয়ে ‍আবারও সংবাদমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেকায়দায় পড়েছেন ট্রাম্প।

সংবাদমাধ্যম জানায়, গত বুধবার (১০ আগস্ট) ফ্লোরিডায় এক আলোচনা সভায় ওবামাকে তোপ দেগে রিপাবলিকান এ প্রার্থী বলেন, ‘তিনি (ওবামা) তো আইএসের প্রতিষ্ঠাতা।’ এ নিয়ে হইচই শুরু হয় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে। সেই আঁচটা টের পেতে দু’দিন সময় লাগে ধনকুবের এ প্রার্থীর।

এরপর শুক্রবার (১২ আগস্ট) টুইটারে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি তো ওটা মজা করে বলেছিলাম। বিষয়টা নিয়ে মিডিয়াই বাড়াবাড়ি করছে। ওরা মজাই বোঝে না।’

ট্রাম্প এভাবে ডিগবাজি দিলেও সমালোচকেরা বলছেন, ভুলটা বোধে আসায়ই দায় এড়াতে চাইছেন তিনি।

তিনি পিছু হটলেও ব্যাপারটাকে সহজে ছেড়ে দিচ্ছে না লেবাননের সশস্ত্র সংগঠন হিজবুল্লাহ। তাদের নেতা হাসান নসরুল্লাহ বলছেন, একজন মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী যখন ওবামাকে আইএসের প্রতিষ্ঠাতা বলছেন, তখন নিশ্চয়ই কোনো তথ্য হাতে নিয়েই বলছেন তিনি।

তবে এবারই প্রথম নয়, ট্রাম্প এর আগেও বেশ কিছু বিতর্কিত মন্তব্য করে ফের ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন।

গত মাসেই তার প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে আক্রমণ করে বলেন, ‘রাশিয়া, তোমরা কি শুনছ? আমার ‍আশা, হিলারির যে ৩০ হাজার ইমেলের কোনো খোঁজ নেই, তার হদিস তোমরাই দিতে পারবে।’

বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক শুরু হতেই ট্রাম্প উল্টো হেঁটে বলেন, ‘আমি তো মজা করছিলাম। মিডিয়াই বাড়াবাড়ি করছে।’

এমনসব বিতর্কের কারণে ট্রাম্প তার প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারির চেয়ে জনপ্রিয়তার নিরিখে অনেক পিছিয়ে যাচ্ছেন বলে জানাচ্ছে সংবাদমাধ্যম।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

যুদ্ধ অনিবার্য : মার্কিন সেনাবাহিনীর জন্য নতুন নির্দেশনা!

উত্তর কোরিয়ার সাথে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ সম্ভবত অনিবার্য। তাই কোরিয়া সীমান্তে যে মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে …

Leave a Reply