ঢাকা : ২৮ মার্চ, ২০১৭, মঙ্গলবার, ২:৩৯ পূর্বাহ্ণ
সর্বশেষ
আতিয়া মহলের নিচতলায় ৪টি লাশ হারের বদলা নিতে শ্রীলঙ্কা দলে যুক্ত বাড়তি দুই পেসার, পাল্টে ফেলেছে উইকেটের চিত্রও অভিনেতা মিজু আহমেদ মারা গেছেন মোটরসাইকেলে দুজনের বেশি ওঠলে ৩ মাসের কারাদণ্ড দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচের জন্য টাইগারদের শক্তিশালী একাদশ প্রকাশ আবারও আলোচনার টেবিলে মারুফ, সুখবরের আভাস শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচ আগামীকাল, যা বললেন মাশরাফি স্বপ্নের ফাইনালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিপক্ষ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শততম টেষ্টের জয় নিয়ে প্রশ্ন তোলায় আইসিসিকে ধিক্কার জানালো বিসিএসএফ ভারতে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় মুসলিম হত্যা ও ঘর-বাড়িতে আগুন
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

এখন হাতি পানিতে পড়ে থাকলেও খবর হয়,মানুষ না খেয়ে থাকলে খবর হয় না

received_1672890929699110

স্টাফ রির্পোটার,বিডি টুয়েন্টিফোর টাইমস: কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম বলেছেন, ’আজকে যারা
বঙ্গবন্ধুর ভক্ত সেজেছেন তারাই ’৭৫ সালে তাকে হত্যার পথ প্রশস্ত করেছিলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম গতকাল (মঙ্গলবার) বিকেল ৫টায় ধানমণ্ডির বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে যান। এসময় তিনি শোকাবহ আগস্ট সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানান সাংবাদিকদের কাছে।

বঙ্গবীর এসময় আরও বলেন, ’মাফ করবেন। আমি ১৫ আগস্ট ঘর থেকে বের হই না, কিছু খাই না, কারো সাথে দেখা করি না। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর তার অনেক ভক্ত আসতে পারেননি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর যখন কেউ কথা বলত না, গাছের পাতাও নড়ত না, সেই সময় প্রতিবাদ করেছিলাম।

দীর্ঘ ১৬ বছর নিজের ঘরে পা দিতে পারিনি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আজও বেঁচে আছি; এই অপরাধে দয়া করে যা খুশি তা প্রশ্ন করবেন না।’

১৫ আগস্ট কেন এখানে আসেননি- একজন সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ মন্তব্য করেন।

কত দিন পর বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে এলেন সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ’মাঝে মধ্যেই আসি আপনারা খোঁজ রাখেন না। এখন হাতি পানিতে পড়ে
থাকলেও খবর হয়। মানুষ না খেয়ে থাকলে খবর হয় না।’

বঙ্গবীর বলেন, ১৫ আগস্ট তার হত্যার পর যারা প্রতিবাদ করেছিল, তারা সেদিন হয়েছিল দুষ্কৃতিকারী । কারো কারো জেল, জরিমানা, ফাঁসি
হয়েছিল। তিনি সরকারের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, আমরা কি এখন দুষ্কৃতিকারী না দেশপ্রেমিক?

বর্তমান সঙ্কটের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্যোগ নেয়ার
আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ’বর্তমানের চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এক জিনিস নয়। মুক্তিযুদ্ধের সময় জাতি এক হয়েছিল বলেই আমরা জয়লাভ করেছিলাম। তাদের তুলনায় আমাদের অস্ত্রের শক্তি তেমন ছিল না। কিন্তু আমাদের রক্ত দেয়া, জীবন দেয়ার ও একে-অপরকে ভালোবাসার শক্তি ছিল অনেক বেশি।

আজকে সেটা নেই। আজকে জাতীয় চেতনা, সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করার উদ্যোগ
প্রধামন্ত্রীর নেয়া দরকার। এই উদ্যোগ নিয়ে তিনি যদি সফল হন, তাহলে সারা বিশ্বে তার নাম থাকবে।

খালেদা জিয়ার জন্মদিন প্রসঙ্গে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ’খালেদা জিয়া যদি বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এবং তার হত্যার ঘটনায় মর্মাহত হয়ে জন্মদিন পালন না করে থাকেন, তাহলে সেটা সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুবার্ষিকী সার্বজনীনভাবে সবার পালন করা উচিত।

এসময় কাদের সিদ্দিকীর স্ত্রী ও দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নাসরিন সিদ্দিকী ছাড়াও দলের নেতাকর্মীরা তার সঙ্গে ছিলেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

খানসামায় মহিলা সমাবেশে সাত সহস্র্রাধিক বিএনপি নেতাকর্মীর আওয়ামী লীগে যোগদান

দিনাজপুর (খানসামা) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় গতকাল ২৩ মার্চ বৃহস্পতিবার উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক …