Mountain View

‘প্রিয় মানুষদের জন্য হলেও দেশকে কিছু দিতে চাই’ : অাশরাফুল

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২১, ২০১৬ at ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ

বিডি২৪টাইমস স্পোর্টসঃ আগস্টের ১৩ নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেও আইসিসির কাছ থেকে ‘প্লেয়ার গুড অব কন্ডাক্ট’ দরকার ছিলো মোহাম্মদ আশরাফুলের। সেটাও হাতে পেয়ে গেছেন কয়েকদিন আগেই। মঙ্গলবার জানিয়েছিলেন খুব দ্রুতই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সুযোগ সুবিধা নিয়ে দ্রুতই অনুশীলন শুরু করবেন।

এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার থেকে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের ইনডোরে শুরু করেছেন অনুশীলন। চিরচেনা জায়গায় ফিরতে পেরেও কিছুটা হতাশা কাজ করছিলো আশরাফুলের। ১৩ বছর জাতীয় দলে খেললেও গেল তিন বছর এখানে অনুশীলন করার সুযোগ পাননি তিনি। তবে সব ভুলে আবারও এগিয়ে যেতে চান তিনি। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে প্রথমদিন অনুশীলনের আগে এমনটাই জানালেন আশরাফুল।

বললেন, ‘তিন বছর পাঁচ মাস পর এখানে অনুশীলন করছি। ১৩ বছর ক্রিকেট খেলেছিলাম জাতীয় দলে, প্র্যাকটিস করতে পারছিলাম না…। আজ খুব ভালো লাগছে দ্বিতীয় সুযোগ পেয়ে। আশা করি বাকি জীবনটা যেন ভালোভাবে কাটাতে পারি। এখানকার সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করে যেন ভালো ভালো ইনিংস উপহার দিতে পারি সেটাই আমার লক্ষ্য থাকবে।’

গেল তিন বছর নিজ উদ্যোগে অনুশীলন চালিয়ে গেছেন বাংলাদেশের কনিষ্ঠতম এই টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান, ‘শেষ তিন বছর কিন্তু আমি নিজে নিজে অনুশীলন করেছি ওয়াহিদ স্যারের কাছে, ইমরান স্যারের কাছে। ক্রিকেট বোর্ডের অধীনে মিরপুরে অনুশীলন করতে পারিনি। এখন সে সুযোগ পেয়েছি। সবার সহযোগিতা হয়তো পাবো। কোচিং স্টাফ, ট্রেনারদের সহায়তাও পাবো।’

এরই মধ্যে ক্রিকেট অনেক এগিয়ে গেছে বলে মনে করেন আশরাফুল। তবে তার সাথে মানিয়ে নিতে চেষ্টা করবেন জানিয়ে বললেন, আমি ছোটবেলা থেকেই খেলা প্রচুর দেখতাম। শেষ তিন বছরে  খেলার বাইরে ছিলাম তখন আমি আরও বেশি দেখেছি। এই তিন বছরে কতটা ফাস্ট ক্রিকেট হয়েছে। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট আসার পর থেকে। তো অবশ্যই নিজেকে মানিয়ে নিতে চেষ্টা করবো এখনকার ক্রিকেট যেভাবে চলছে। মানিয়ে নিতে পারি সেটাও আমার লক্ষ্য থাকবে।’

গেল তিন বছর নিষিদ্ধ থাকার পরও যেভাবে ভক্তদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন তার কৃতজ্ঞতা স্বীকারও করলেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। ‘আমি ১৬ বছরে যেই ভালোবাসা পেয়েছি, বিশেষ করে শেষ তিন বছর খেলার বাইরে থাকার পরও যে সাপোর্ট পেয়েছি আমার ভক্ত, পরিবার, বন্ধু-বান্ধব ও কাছের মানুষের কাছে..তাদের জন্য হলেও আমি দেশকে কিছু দিতে চাই। এটার জন্য যত হার্ডওয়ার্ক প্রয়োজন আমি সেটা করবো।’

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ম্যাচ পাতানোর অভিযোগে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন আশরাফুল। যা শেষ হয় ১৩ আগস্ট। এই পাঁচবছর ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) স্বীকৃত আন্তর্জাতিক কিংবা ঘরোয়া, সব ধরণের ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হয়েছে তাকে।

নিষেধাজ্ঞা কাটলেও আরো দুইবছর জাতীয় দল কিংবা ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে খেলা হচ্ছে না তার। আপাতত তাই ঘরোয়া ক্রিকেটেই নতুন করে সবকিছুর শুরু করতে যাচ্ছেন আশরাফুল।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View