ঢাকা : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, সোমবার, ৬:৩১ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

অনতিবিলম্বে বগুড়া ট্যুরিষ্ট পুলিশ বগুড়া জোন চালু করা হোক:- শহিদুল ইসলাম সাগর

FB_IMG_14717440844328679
বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়া জুড়ে ছড়িয়ে আছে নানা প্রত্নতাত্ত্বিকনিদর্শন, মহাস্থানগড় বাংলাদেশের সর্বপ্রাচীন সভ্যতা। ভাসুবিহার কে পৃথিবীর প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় বলা হয়, যে কারনে সারাদুনিয়ার ভ্রমন পিপাসু মানুষ বেড়াতে আসে বাংলাদেশের মহেঞ্জোদারো পুন্দ্রনগরীতে। সবুজ-শ্যামল বগুড়ার নয়নাভিরাম সৌন্দর্য উপভোগ করতে প্রতিবছর ছুটে আসে বিশ্বের নানা দেশের প্রকৃতিপ্রেমিরা। শুধু বিদেশি পর্যটকই নয় দেশিয় পর্যটকরাও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে অবকাশ যাপনসহ ছুটি কাটাতে আসেন সুযোগ পেলেই। কিন্তু দেশি-বিদেশি এসব পর্যটক নতুন জায়গায় অচেনা মানুষের কাছে এসে পড়েন নানা বিড়ম্বনায়। অনেকে সর্বস্ব খুইয়ে ঘরে ফিরেন ভ্রমণের আকাঙ্খা তুলে রেখে। এ ধরনের বিড়ম্বনা থেকে পর্যটকদের বাঁচানোসহ বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পে গতি আনার লক্ষ্যে ২০১৩ সালের নভেম্বরে গঠন করে সরকার ‘ট্যুরিস্ট পুলিশ’ নামে পুলিশের বিশেষ একটি ইউনিট । নিয়মিত পুলিশেরই একটি অংশ ট্যুরিস্ট পুলিশ ইউনিট কাজ শুরু করেছে । কিন্তু এদের সকল তৎপরতা পর্যটকদের ঘিরে। শুধু নিরাপত্তাই নয় , পর্যটকদের রাত যাপন তথা আবাসন সমস্যাসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যেও এই পুলিশ কাজ করবে । ট্যুরিস্ট পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছেন একজন ডিআইজি । সদস্য সংখ্যা ৭০৩। সদর দফতর রাজধানীর বনশ্রী এলাকায়।কিন্তু অত্তান্ত দুঃখ ও পরিতাপের বিষয় প্রাচীন বাংলার রাজধানী পুণ্ড্রবর্ধন এ ট্যুরিস্ট পুলিশের জোন এখনো হয়নি ৩ বছরে, অথচ থাকা উচিৎ ছিল সব কিছুর আগে এমনটাইমনে করেছেন পর্যটকবিদ ও বগুড়া ট্যুরিষ্ট ক্লাবের সভাপতি শহিদুল ইসলাম সাগর ।

অনতিবিলম্বে ট্যুরিস্ট পুলিশ বগুড়া জোন চালু করা হোক এমনটাই দাবী জড়ালো দাবি জানিয়েছেন পর্যটনবিদ । তিনি উল্লেখ করে বলেন, তাতে পর্যটন বর্ষ ২০১৬ এবং সার্ক কালচারাল ক্যাপিটাল সিটি সার্থক হবে। ট্যুরিস্ট পুলিশের বর্তমান কার্যক্রম: পর্যটন পয়েন্টগুলোকে চিহ্নিত করে জোন ভাগ করে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে । এগুলো হচ্ছে ঢাকা জোন, চট্টগ্রাম জোন, কক্সবাজার জোন ও টেকনাফ, কুয়াকাটা জোন, সিলেট জোন ও মৌলভীবাজার। প্রত্যেক জোনের দায়িত্বে রয়েছেন একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। ঢাকা জোন এর মধ্যে রয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্ক, সোনারগাঁও, আহসান মঞ্জিল, লালবাগের কেল্লাসহ বিভিন্ন ট্যুরিস্ট স্পট। চট্টগ্রাম জোনে পতেঙ্গা, ফয়েজ লেকসহ বিভিন্ন স্পট। কক্সবাজার জোনে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকার হোটেল, মোটেল, রিসোর্ট, কক্সবাজারের ডুলাহাজরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবসাফারী পার্ক, ইনানী, হিমছড়ি, মহেশখালী, টেকনাফ ও সেন্টমার্টিন দ্বীপ। পার্বত্য চট্টগ্রাম জোনে জনবল প্রাপ্তির পর কার্যক্রম শুরু হবে। কুয়াকাটা জোনে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত এলাকায় হোটেল, মোটেল,রিসোর্টসহ গঙ্গামতির চর, মিস্ত্রিপাড়া বৌদ্ধ বিহার, লেবুরচর ট্যুরিস্ট স্পর্ট। সিলেট জোনে বর্তমানে জাফলং, রাতারগুল, লালখাল এবং হযরত শাহজালাল (রঃ) ও হযরত শাহ পরান ( রঃ) মাজার এলাকায়,মৌলভীবাজার জেলার অধীনে শ্রীমঙ্গলের সকল চা বাগান, লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানও মাধবকুন্ড জলপ্রপাত ট্যুরিস্ট স্পর্ট।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

15285097_556839684509677_3768554842126168573_n

পীরগঞ্জের টুকুরিয়া ও চৈত্রকোলে মদ হেরোইন-ইয়াবা’র জমজমাট ব্যবসা!

পুরের পীরগঞ্জ উপজেলার প্রস্তাবিত ভেন্ডাবাড়ী থানার  টুকুরিয়া ও চৈত্রকোল ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে মদ তৈরী ও …

Mountain View