ঢাকা : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, সোমবার, ১:৫৬ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ > জাতীয় > জগ্নাথে দাবি না মানা পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের ডাক

জগ্নাথে দাবি না মানা পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের ডাক

full_981190985_1471841056

মোঃ রাজিব রজ্জব,বিডিটুয়েন্টিফোরটাইমসঃ হল নির্মাণের  দাবি না মানা পর্যন্ত আজ সোমবার থেকেই অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট পালন করবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারের পরিত্যক্ত জায়গায় আবাসিক হল নির্মাণের দাবিতে তাঁরা আন্দোলন করছে।

সকালে শিক্ষার্থীদের মিছিল পুলিশের বাধার মুখে পড়ে। এ সময় পুলিশের লাঠিপেটায় কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হয়। মিছিলটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে যাচ্ছিল।

এরপর শিক্ষার্থীরা ইংলিশ রোডের তাঁতীবাজার মোড় অবরোধ করে। সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে শুয়ে-বসে বিক্ষোভ করে। এতে বাবুবাজার থেকে যাত্রাবাড়ী ও গুলিস্তান থেকে সদরঘাট পর্যন্ত যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বেলা সোয়া দুইটার দিকে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে সাইফুল ইসলাম বলেন, আজ থেকেই তাঁরা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করছেন। দাবি না মানা পর্যন্ত এই আন্দোলন চলবে।

অবরোধ চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক সব কাজ বন্ধ থাকবে।

সকাল সাড়ে আটটার দিকে মিছিলে থাকা কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী তাঁরা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় জড়ো হতে শুরু করেন। এরপর সাড়ে নয়টার দিকে তাঁরা মিছিল নিয়ে বের হন। মিছিলটি এগোতে থাকলে বিভিন্ন সড়কে পুলিশ বাধা দেয়। জজকোর্ট এলাকায় প্রথম ব্যারিকেড ভাঙেন শিক্ষার্থীরা।

এরপর রায় সাহেব বাজার মোড়ে। মিছিলটি নয়াবাজার মোড়ে পেরিয়ে বংশাল রোডের দিকে গেলে পুলিশ কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোড়ে। এরপর রাবার বুলেট, জলকামান থেকে পানি ছিটিয়ে ও লাঠিপেটা করে শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন। তাঁদের মধ্যে তৌফিক এলাহী ও মিথুন রায় নামের দুই শিক্ষার্থীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

দাবি আদায়ে শিক্ষার্থীরা গত বৃহস্পতিবার ও গতকাল রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকে তালা লাগিয়ে ও সড়ক অবরোধ করে ধর্মঘট করেছেন। এই পরিস্থিতিতে গতকাল বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মীজানুর রহমানের সভাকক্ষে জরুরি সভা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সভায় কারাগারের জায়গা বিশ্ববিদ্যালয়কে দিতে একমত পোষণ করেন তাঁরা। একইভাবে শিক্ষার্থীদের দাবিকে সমর্থন জানিয়ে গতকাল পৃথক বিবৃতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ও আওয়ামী লীগ সমর্থক শিক্ষকদের সংগঠন নীল দল।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হয়, এমন কর্মসূচি থেকে বিরত থাকতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

এ সম্পর্কিত আরও