ঢাকা : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, শুক্রবার, ৭:৫০ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

বাংলাদেশ একদিনের ম্যাচে এখনো যে দলগুলোর সাথে পরাজিত হয়নি

Bangladesh fisrt match win

মোঃরাজিব রজ্জব,স্পোর্টস ডেস্ক,বিডিটুয়েন্টিফোর টাইমসঃ বাংলাদেশ সর্বপ্রথম ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ১৯৮৬ সালে ৩১ মার্চ পাকিস্তানের বিপক্ষে। বাংলাদেশ ১৯৭৭ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার (আইসিসি) সহযোগী সদস্যে পরিণত হয়। পরবর্তীতে রাকিবুল হাসানের নেতৃত্বে ১৯৭৯ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতআইসিসি ট্রফিতে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে বিশ্ব ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ করে।

চার ম্যাচের দু’টিতে তারা হেরে যায় এবং দু’টিতে জয়লাভ করে প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নেয়। গাজী আশরাফ হোসেন লিপু’র নেতৃত্বে এশিয়া কাপ ক্রিকেটে ১৯৮৬ সালের ৩১শে মার্চ বাংলাদেশ সর্বপ্রথম আন্তর্জাতিক একদিনের ক্রিকেটে পাকিস্তানের বিপক্ষে অংশগ্রহণ করে।

১৯৮৬ সালের এশিয়া কাপে অংশগ্রহনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখে। আয়োজক দেশ হিসেবে বাংলাদেশ ১৯৮৮ সালের এশিয়া কাপে অংশগ্রহণ করে।
এটাই ছিল বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত সর্বপ্রথম আন্তর্জাতিক একদিনের ক্রিকেট প্রতিযোগিতা। ভয়াবহ বন্যা সত্ত্বেও বাংলাদেশ আয়োজক হিসেবে সফলতার পরিচয় দেয়। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের পর বাংলাদেশ একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম জয়ের দেখা পায় ১৯৯৮ সালে।
দীর্ঘ ২২ খেলায় হারের পরমোঃ রফিকের অসাধারণ নৈপুণ্যে (৭৭ রান ও ৩টি উইকেট) কেনিয়ার বিপক্ষে ভারতে অনুষ্ঠিত খেলায় বাংলাদেশ এই জয়লাভ করে.

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ ৩১২ টি এক দিনের ম্যাচ খেলেছে।যার মধ্যে জয় পেয়েছে ৯৮টাতে এবং পরাজয় এসেছে ২১০ টিতে।

অাসুন দেখে নেই বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত যে দল গুলোর বিপক্ষে একটি ম্যাচ ও পরাজিত হয়নি।bermuda

বারমুডাঃ বাংলাদেশ বারমুডা ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে ২০০৭ সাল থেকে ওডিআই ম্যাচ খেলে আসছে।এই দুইটি দল এই পর্যন্ত ২বার মুখোমুখি হয়েছে, যার মধ্যে বাংলাদেশ সবগুলি ম্যাচ জিতেছে।প্রথম ম্যাচটি ২০০৭ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি অ্যান্টিগুয়া রিক্রিয়েশন গ্রাউন্ড, সেন্ট জন’স এ দুই দল মুখোমুখি হয়।আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে আট উইকেট হারীয়ে ২0৫ রান করতে সক্ষম হয় মারমুডা।

মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ৩৭ ওভার দুই বলেই ২০৬ রান করে প্রথম দেখাতেই প্রথম জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

ঠিক তার এক মাস পরেই ২য় বারের মতো আবারো মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ এবং বারমুডা।বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে বৃষ্টি আইনে বাংলাদেশ ৭ উইকেটে জয় লাভ করে।

 

বারমুডা 
৯৪/৯ (২১ ওভার)

২য় ম্যাচের সংক্ষিপ্ত স্কোর  

 বাংলাদেশ

৯৬/৩ (১৭.৩ ওভার)

bang

হংকংঃ বাংলাদেশ এবং হংকং ক্রিকেট দল একে অপরের বিরুদ্ধে এই পর্যন্ত মাত্র ১বার মুখোমুখি হয়েছে।সেই ম্যাচটি হয়েছিল ২০০৪ এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বে। ওই ম্যাচে বাংলাদেশ, হংকং ক্রিকেট দলকে ১১৬ রানে পরাজিত করে।

scot

স্কটল্যান্ডঃ বাংলাদেশ এবং স্কটল্যান্ড ক্রিকেট দল একে অপরের বিরুদ্ধে ১৯৯৯ সাল থেকে ওডিআই ম্যাচ খেলে আসছে।এই দুইটি দল এই পর্যন্ত ৪বার মুখোমুখি হয়েছে, যার মধ্যে ৩টি ম্যাচে বাংলাদেশ জয়ী হয় বাকি ১টি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।বাংলাদেশ ১৯৯৯ সালের ২৪মে প্রথম ম্যাচে মাঠে নামে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে।

বাংলাদেশ 
১৮৫/৯ (৫০ ওভার)
প্রথম ম্যাচ  স্কটল্যান্ড
১৬৩ (৪৬.২ ওভার)

২০০৬ সালে ১৫ই ডিসেম্বর চট্টগ্রামের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন স্টেডিয়াম নিজেদের মধ্যেকার ২য় ম্যাচ খেলতে নামে বাংলাদেশ বনাম স্কটল্যান্ড।

স্কটল্যান্ড 
১৫৩ (৪৫.১ ওভার)
২য় ম্যাচ

 

 বাংলাদেশ
১৫৪/৪ (২৯.১ ওভার)

৩য় ম্যাচটি ২০০৬ সাল্লের ১৭ই ডিসেম্বর ঢাকার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ১৪৬ রানে পরাজিত করে সফরকারী স্কটল্যান্ডকে।

বাংলাদেশ 
২৭৮/৬ (৫০ ওভার)
৩য় ম্যাচ  স্কটল্যান্ড
১৩২ (৪১.৩ ওভার)

সব শেষ ম্যাচটি ২০১০ সালের ১৯ জুলাই টিটউড, গ্লাসগোতে হওয়ার কথা ছিলো কিন্তু বৃষ্টির কারণে পরিত্যাক্ত হয়।lahor

সংযুক্ত অারব অামিরাত: সংযুক্ত অারব অামিরাতের সাথে একবারই ২০০৮ সালের ২৪ শে জুন পাকিস্তানের লাহোরে গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে একদিনের ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়েছিলো বাংলাদেশের সেই ম্যাচে ১০৯ রানের ইনিংস খেলেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩০০ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।জবাবে ৪৫ ওভার চার বলেই সব কয়টি উইকেট হারিয়ে ২০৪ রান করতে সক্ষম হয় আরব আমিরাত।বাংলাদেশ ৯৬ রানের জয় তুলে নেয়।

[লেখকের অনুমতি ব্যতীত কপি করা কপিরাইট আইনে অপরাধ বলে গন্য হইবে]

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

বিপিএলের ফাইনালের সময়সূচিতে পরিবর্তন

দেখতে দেখতে শেষ হয়ে গেল বিপিএলের এলিমিনেটর ও কোয়ালিফায়ার ম্যাচ। বিপিএলের পর্দা নামার মাঝে দাঁড়িয়ে …

Mountain View