Mountain View

দিনাজপুরে শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে আইনজীবী দম্পত্তির বিরুদ্ধে

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২৭, ২০১৬ at ৮:১৬ অপরাহ্ণ

মোঃ আরিফ জাওয়াদ, দিনাজপুর:- দিনাজপুর শহরে গৃহকর্মী ইয়াসিন আলী (১০) নামে এক শিশু গৃহকর্মীকে মারধর করে আহত করার অভিযোগ উঠেছে আইনজীবী দম্পত্তির বিরুদ্ধে। ইয়াসিন ময়মনসিংহ জেলার চর আনন্দপুর গ্রামের মোঃ বাবুল আক্তরের ছেলে। সেই সঙ্গে শহরের পুলিশ লাইন সংলগ্ন ইসলামবাগ এলাকার অ্যাডভোকেট ফারুক হোসেনের বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করত। 14055120_556125047921657_8890928118342501017_n

কোতোয়ালি থানার ওসি রেদওয়ানুর রহিম জানান, ২৬শে আগস্ট (শুক্রবার) রাতে তাকে উদ্ধার করে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ (দিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আহত ইয়াসিন জানায়, “আইনজীবী দম্পত্তির বিরুদ্ধে গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগ চাইর মাস থিকা ঠিকমতো খাওন দাওন না দিলেও হেরা আমারে মাইর ঠিক সময় দিতো।

হেগো বাড়ির ভারি কাম করতে পারতাম না, হেরলিগা ম্যাডাম আমার চুল টাইনা টাইনা ছিড়তো আর ছন্নি দিয়া মারতো। পরে সাহেব আইসাও লাঠি দিয়া মারত।” জানা যায়, গত চার মাস আগে তাকে ফারুক উকিলের স্ত্রী রিনা বেগম হালকা কাজ ও পাশাপাশি পড়াশুনা করানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে বাবা-মার কাছ থেকে দিনাজপুরে নিয়ে আসে। এরপর থেকে শুরু হয় অমানবিক নির্যাতন।

নির্যাতন সইতে না পেরে শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় ইয়াসিন। পরে সুইহারী মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড এলাকায় স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। ওসি রেদওয়ানুর রহিম জানান, শিশুর বাবাকে খবর দেওয়া হয়েছে। তিনি আসার পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগের শৈল্য চিকিৎসক বোরহান উদ্দিন জানান, “মাথা ছাড়াও শিশুটির শরীরের বিভিন্ন অংশে অনেক জখমের চিহ্ন রয়েছে।” “ইয়াসিন প্রতিদিন বিছানায় প্রস্রাব করত, তাই তাকে মারধর করা হয়েছে”, বলে জানান অ্যাডভোকেট ফারুক।

এ সম্পর্কিত আরও

আপনিও লিখুন .. ফিচার কিংবা মতামত বিভাগে লেখা পাঠান [email protected] এই ইমেইল ঠিকানায়
সারাদেশ বিভাগে সংবাদকর্মী নেয়া হচ্ছে। আজই যোগাযোগ করুন আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুকের ইনবক্সে।