Mountain View

এবার দ্বিস্তর টেস্টকে না বললেন বিসিসিআই প্রেসিডেস্ট

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৩১, ২০১৬ at ৪:২৬ অপরাহ্ণ

Anurag-Thakur-bg20160831161342

টেস্ট ক্রিকেটকে দ্বিস্তর করা ও চার দিনে নামিয়ে আমার জন্য বেশ জোরেশোরে প্রস্তাব করেছিল আইসিসি। তবে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থাটির এমন প্রস্তাবে আগেই নেতিবাচক মন্তব্য করেছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। এবার সরাসরি না’ই করে দিলেন বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট আনুরাগ ঠাকুর।

ঠাকুর জানান, ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় ফরম্যাটের এই খেলার সমস্য সমাধানে এ ব্যাপারগুলো কোনো পরিবর্তন আনবে না। বরং এ খেলায় কেন দর্শক টানতে পারছে না সে বিষয়ে তাঁকাতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় ইএসপিএনক্রিকইনফোকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে ঠাকুর বলেন, ‘আমাদের আগে জানতে হবে কিভাবে ক্রিকেটকে সাহায্য করবো। আমার মনে হয় এমন সিদ্ধান্ত থেকে আমাদের পিছু হটতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘টেস্ট ম্যাচে আমাদের মূল সমস্যা হচ্ছে দর্শক আসছে না। কেন হচ্ছে এটা? আসলে যেখানে ফুটবল থেকে শুরু করে হকি, রাগবির মতো খেলা দুই ঘণ্টা সময় নেয়। অথচ আমাদের সবচেয়ে ছোট ফরম্যাট টি-টোয়েন্টির সময় লাগে সাড়ে তিন ঘণ্টা। সুতরাং এটা বড় একটা সমস্যা হতে পারে।’

দ্বিতীয়ত কারা টেস্ট খেলা দেখছে তার ওপর নির্ভর করা প্রসঙ্গে ঠাকুর আরও যোগ করেন, ‘ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের দিকে যদি তাঁকাই, যেখানে প্রচুর জনসংখ্যার মধ্যে তরুণরা অন্যতম। ভারত একটি তরুণ নির্ভর দেশ। আর তারা কোন ধরনের ক্রিকেট দেখবে সেটা তাদের ওপরেই ছেড়ে দেওয়া ভালো। এ ব্যাপার গুলোই আমাদের আরও চিন্তা করতে হবে।’

গত জুনে স্কটল্যান্ডের এডিনবরায় আইসিসির বার্ষিক সভায় দ্বিস্তর টেস্টের প্রস্তাব প্রায় পাসই হয়ে যেতে বসেছিল। তবে বাংলাদেশ এর জোর বিরোধিতা করেছিল। শ্রীলঙ্কাও এগিয়ে এসেছিল এর বিরোধিতায়। দ্বিস্তর ধারণা চাপ পড়ে যায় ক্রিকেটের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশ ভারতের বিরোধিতার মুখে। বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ড এখনো অটল নিজেদের অবস্থানে।

দ্বিস্তর টেস্ট হচ্ছে র্যাংকিংয়ে এক থেকে সাত পর্যন্ত দল এক সঙ্গে খেলবে। আর পরের তিন দলের সঙ্গে ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপে খেলা অন্য দুটি দল খেলবে।

ফলে বাংলাদেশের বর্তমান র্যাংকিং অবস্থা সাতের নিচে থাকায় ভবিষ্যতে বড় দলগুলোর বিপক্ষে খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তার সৃষ্টি হয়।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View