এবার ক্যাম্পাসের ‘বড় ভাই’দের নিশ্চিহ্ন করা হবেঃর‍্যাব

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৬ at ১০:০৩ অপরাহ্ণ

rab

ইসলাম প্রচারের নামে ক্যাম্পাসে জঙ্গি কার্যক্রমে জড়িত কোনো ‘বড় ভাই’দের খোঁজ পেলে আমাদের জানান, এ বড় ভাইদের নিশ্চিহ্ন করা হবে। এ মন্তব্য র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদের।আজ (শনিবার) ৩ সেপ্টেম্বর নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ফল-২০১৬ সেমিস্টারে ভর্তি শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বেনজীর আহমেদ বলেন, বাংলাদেশের মানুষ অত্যন্ত শান্তিপ্রিয় ও সহনীয়। শান্তিপ্রিয় এ সমাজে ঘোষণা দিয়ে বোম মেরে, অস্ত্র দিয়ে কয়েকজন মানুষ মেরে কিছু করার স্বপ্ন যারা দেখছেন তারা কিছুই করতে পারবে না। ইতোমধ্যে তারা বাংলাদেশ থেকে নিশ্চিহ্ন হয়েছেন, আবারও হবেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ যে ধর্মচর্চা করে তা শিখেছেন পরিবার থেকে। জেনেছেন ইমামদের কাছ থেকে। এখন সেখানে ইসলাম শেখাচ্ছে বড় ভাইরা।

ক্যাম্পাসে ইসলাম প্রচারের নামে এ বড় ভাইদের দেখলে সঙ্গে সঙ্গে জানানোর অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, এ বড় ভাইদের আমরা নিশ্চিহ্ন ও ধ্বংস করে দিতে চাই।

সোস্যাল মিডিয়া সম্পর্কে র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, এর অনেক ভালো ও খারাপ দিক রয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াকে টেরোরিস্টরা তাদের রিক্রুটমেন্টের কাজে ব্যবহার করছেন। ৯ম-১০ম শ্রেণির শিশুরা সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করছে। জঙ্গিরা টার্গেট করছে তাদের। প্রত্যেক অভিভাবককে এদিকে নজর রাখতে হবে, যাতে তাদের টার্গেট করতে না পারে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সন্ত্রাসী, জঙ্গি কার্যক্রমের কোনো প্রচার, অপচেষ্টা দেখলে সঙ্গে সঙ্গে ৠাবকে জানানোর জন্য শিক্ষার্থীদের অনুরোধ জানান বেনজীর আহমেদ।

জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক সময়ে সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, স্কুল, মাদ্রাসার পদক্ষেপ নেওয়ার প্রশংসা করেন প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বর্তমান সরকার কোনোভাবেই জঙ্গিবাদের কাছে মাথা নত করতে পারে না। কোনো কিছুর বিনিময়ে জঙ্গিবাদের সঙ্গে আপস করবো না।

অনুষ্ঠানে নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ড চেয়ারম্যান আজিম উদ্দিন আহমেদ, সদস্য এমএ কাশেম, স্কুল অব হিউম্যানিটিস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সের ডিন প্রফেসর ড. আব্দুর রব খান প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত আরও