জোড়গাছা কোরবানীর পশুহাটে প্রতারণা চক্রের আশঙ্কা এরাতে কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৬ at ২:২১ অপরাহ্ণ

cow photos

তাজুল ইসলাম (বগুড়া) প্রতিনিধি: পবিত্র ঈদকে সামনে রেখে সারা দেশের ন্যায় বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার জোড়গাছা গরুরহাটে কোরবানীর পশু উঠতে শুরু করেছে। এটি পূর্ব বগুড়ার ঐতিহ্যবাহী গো-হাট নামে খ্যাত। ইতিমধ্যে মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্তরা কোরবানীর পশু হিসেবে গরু, ছাগল-ছাগি, ভেড়া, মহিষ কিনতে শুরু করেছেন। প্রতিবারের মতো এবছরেও অবৈধভাবে ভারত থেকে চোরাই পথে গরু আসার আশঙ্কায় দেশের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের খামারিরা কোরবানির পশুর প্রাপ্ত দাম নিয়ে আশঙ্কায় রয়েছেন। তবে ধনীরা কোরবানীর পশু ক্রয় করতে শুরু করলে এ নতুন সৃষ্ট সমস্যা থাকবেনা বলে জানিয়েছেন, ছোট , বড় ও মাঝারি পশু খামারীরা । এখানে সপ্তাহের মঙ্গলবার গরু ছাগল, ভেড়া, মহিষ ইত্যাতি কেনা বেচা হলেও শুক্রবারে গরু ব্যতিত সকল প্রাণী কেনাবেচা হয়ে থাকে। তবে পবিত্র কোরবানী ঈদকে সামনে রেখে সপ্তাহের শুক্রবারেও গরু কেনা-বেচা হবে হয় বলে জানিয়েছেন, হাট কর্তৃকপক্ষ । এতে ক্রেতাদের সুবিধা হলেও পশু ক্রয় করতে গিয়ে ইজারাদারদের অতিরিক্ত টোল (খাজনা) আদায়ের শিকার হচ্ছেন বলে ক্ষোভ প্রকাশ করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তদারকির জন্য দাবী করেছেন ক্রেতা সাধারন। এব্যাপারে হাট ইজারাদার কর্তৃক জানাযায়, ক্রেতাদের সুবিধা মোতাবেক টোল বা খাজনা (সীমিত) সাধ্যের মধ্যেই রাখা হয়েছে। দূরের ক্রেতা ও বিক্রেতাদের জন্যে নিরাপত্তার সহিত থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়ারও এ হাটে পশুর গর্ভপাত পরিক্ষা করার জন্য একাধিক মেডিকেল টিম নিযুক্ত করা হয়েছে। এতকিছু সুবিধা থাকা সত্বেও বিভিন্ন এলাকার পশু হাট-বাজারের মতো এহাটেও জাল টাকার নোট ছোড়াছড়ির বিষয়টি নিয়ে শংঙ্কিত রয়েছেন পশু বিক্রেতা সাধারণ। তারা কারন উল্লেখকরে বলেন, প্রতারক চক্রটি ঈদকে সামনে রেখে জাল টাকা ছোড়ানোর জন্যে একদল প্রতারক চক্র হাটের মধ্যে পশু ক্রয়করার নামে এ জাল টাকা ছড়িয়ে প্রতারণা করে চলছে। এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট প্রসাশনের ত্বরিত হস্তক্ষেপ চেয়েছেন প্রতারণার আশঙ্কাকারী পশু বিক্রেতারা। একই সাথে জাল টাকা সনাক্তকরণের জন্য ইলেকট্রনিক্স মেশিনের মাধ্যমে টাকা গণনা করার ব্যবস্থাও চেয়েছেন বিক্রেতা সাধারণ।

এ সম্পর্কিত আরও