ঢাকা : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, বুধবার, ৪:৪০ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

ওরা এখন অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে

স্পোর্টস ডেস্ক : জাতীয় দলের দুই ক্রিকেটার এখন অস্ট্রেলিয়ায়। বোলিং অ্যাকশন শুধরে নিতে উড়াল দিয়েছেন তারা। ২০১৪ সালে জাতীয় দলে আসেন এই দুই ক্রিকেটার।

 

ভালোই চলছিলো তাদের ক্রিকেটীয় জীবন। দুই জনেই ধাক্কা খান একই সাথে। সেটি ভারতের মাটিতে। ১৪ ওয়ানডেতে তাসকিনের শিকার ২১ উইকেট। সেই সঙ্গে ১৩ টি-টোয়েন্টিতে নিয়েছেন ৯ উইকেট। অন্যদিকে ১৬ ওয়ানডেতে ২৪ ও ১০ টি-টোয়েন্টিতে ১২ উইকেট নেন সানি। দু’জনই জাতীয় দলে স্থায়ী হয়ে মাঠ কাঁপানোর স্বপ্ন দেখছিলেন। রঙিন স্বপ্ন নিয়ে এই বছর দু’জনই ভারতে খেলতে গিয়েছিলেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।

 

কিন্তু সেখানেই হোঁচট খায় তাদের স্বপ্ন। আইসিসি অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের জন্য নিষিদ্ধ করে দু’জনকেই। এরপর কেটে গেছে পাঁচটি মাস। দু’জনই লড়াই করেছেন নিজেদের বোলিং অ্যাকশন শুধরে নেয়ার। আর গতকাল পরীক্ষা দিতে অস্ট্রেলিয়ার

 

 

উদ্দেশে দেশ ছাড়েন তারা।  রাত ১১ টা ৫৫ এর সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে চেপে তারা গেছেন অস্ট্রেলিয়ায়। সেখানেই আইসিসি’র মনোনীত ল্যাবে পরীক্ষা দেবেন দু’জন। এরপর আইসিসি ফের সিদ্ধান্ত নেবে তাদের বিষয়ে। যাওয়ার আগে তাসকিন বলেন, ‘আসলে দিনটির জন্য মুখিয়েছিলাম। কবে সময় হবে, কবে পরীক্ষা দেবো!

 

এখন খুব ভালো লাগছে। অনেক পরিশ্রম করেছি। অনেক অনুশীলন করেছি। এখন শুধু সবার দোয়া চাই। যেন পরীক্ষা দিয়েই ফের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে নিজেকে প্রমাণ করতে পারি।’

 

টানা পাঁচ মাস তাসকিনের জন্য দেশীয় কোচ ছিলেন সর্বক্ষণ। তবে স্পিনার আরাফাত সানি তেমন কোনো অনুশীলন করতে পারেননি। জাতীয় দলের স্পিন কোচ রুয়ান কালপাগে চাকরি ছাড়ার আগেই বাংলাদেশ ছেড়েছিলেন। তাই একাই অনুশীলন করতে হয়েছে সানিকে। জ্বরে ভুগছিলেন সানি। তিনি বলেন, ‘পরীক্ষা তো একটু চাপ থাকবেই। আমি যতটা পরিশ্রম করেছি তাতেই আমি বিশ্বাস করি পরীক্ষা দিয়ে উৎরে যেতে পারবো। এখন সবার দোয়াই চাইছি। এখন ভালো আছি। আরও দুইদিন সময় পাবো। আশা করি জ্বর ভালো হয়ে যাবে।’

 

৮ই সেপ্টেম্বর ব্রিসবেনের ন্যাশনাল ক্রিকেট সেন্টারের গবেষণাগারে পরীক্ষা দিবেন বাংলাদেশ দলের এই দুই বোলার। তাসকিনের পরীক্ষাটা প্রথমেই হবে স্থানীয় সময় বেলা ১০ টায়। এরপর স্থানীয় সময় বেলা ২টা বাজে পরীক্ষা দিবেন অরাফাত সানি। পরীক্ষা শেষে তাদের অপেক্ষা করতে হবে আইসিসি’র ছাড়পত্রের জন্য। অন্যদিকে তাসিকিন ও সানিকে সঙ্গ  দিবেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ হাথুরুসিংহে। এরই মধ্যে ঈদের ছুটি নিয়ে তিনি চলে গেছেন অস্ট্রেলিয়াতে পরিবারের কাছে। তাসকিন বলেন, ‘কোচ হাথুরুসিংহে আমাদের সঙ্গে থাকবেন। এটি আমাদের অনেক সাহসও যোগাবে।’

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

আম্পায়ারের সঙ্গে বাজে ব্যবহার; সাকিবকে জরিমানা

আম্পায়ার খালিদ মাহমুদের সিদ্ধান্ত মেনে নিতে না পেরে মাঠেই তার সঙ্গে ‘বাজে আচরণ’ করেন সাকিব, …

Mountain View