Mountain View

বগুড়ায় চিকিৎসা করতে যাওয়া হলো না স্বামী-স্ত্রীর, ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যু

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৬ at ৫:৪৫ অপরাহ্ণ

গোলাস রব্বানী শিপন (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলায় চিকিৎসা করতে যাওয়ার সময় ট্রেনে কাটা পড়ে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। রোববার, ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে উপজেলার তালোড়ার দেবখণ্ড গাড়ি বেলঘড়িয়া নামক স্থানে রেলঘুমটির কাছে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত ব্যক্তিরা হলেন- বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া ইউনিয়নের দেবখণ্ড মধ্যপাড়া গ্রামের রহিম উদ্দিনের ছেলে দিনমজুর আরিফুল ইসলাম (২৪) ও তার স্ত্রী হাসিনা বেগম (২০)। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা সান্তাহারগামী দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ট্রেন বেলা সাড়ে ১২টার দিকে তালোড়া স্টেশন ত্যাগ করে। প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে বেলঘড়িয়া রেলঘুমটি অতিক্রম করার সময় আরিফুল ইসলাম তার স্ত্রী হাসিনা বেগম ট্রেনে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। নিহত স্বামী- স্ত্রীর বিষয়ে তালোড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ মেহেরুল ইসলাম জানান, দিনমজুর আরিফুল ইসলাম ৭-৮ মাস পূর্বে নন্দীগ্রামের ছয়ঘটি বুচন গ্রামের চাঁন মিয়ার মেয়ে এবং সম্পর্কে তার খালাতো বোন হাসিনা বেগমকে বিয়ে বন্ধনে অাবদ্ধ হয়। হাসিনার চলাফেরায় কিছুটা মানসিক প্রতিবন্ধী লক্ষ্য করাগেছে। নিহত আরিফুল তার স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য দুপুরে পার্শ্ববর্তী গাড়ি বেলঘড়িয়া গ্রামে এক ডাক্তারের কাছে যাচ্ছিলেন। বেলঘড়িয়া রেল ঘুমটির কাছে রেল লাইন পারাপারের সময় তারা দু’জন এই ট্রেন দূর্ঘটনায় নিহতের স্বীকার হোন। তারা অসাবধানতা বশত ট্রেনে কাটা পড়েছেন নাকি আত্মহত্যা করেছেন তা কেউ নিশ্চিত করতে পারেনি। তবে গ্রামবাসীর বরাত দিয়ে তালোড়া স্টেশন মাস্টার আবদুর রহিম জানান, দাম্পত্য কলহের ক্ষোভে ওই দম্পতি ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে। বোনারপাড়া রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান জানান, তালোড়া স্টেশনের কাছে এক দম্পতি ট্রেনে কাটা পড়ে নিহতের খবর অামরা পেয়েছি। লাশ উদ্ধারে বগুড়া স্টেশন ফাঁড়ির ইনচার্জ হারুনার রশিদ ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View