ঢাকা : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, সোমবার, ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

আগামী ১০ মাসের বাংলাদেশের ম্যাচ গুলোর চূড়ান্ত সময়সূচী

আগামী ১০ মাসের বাংলাদেশের ম্যাচ গুলোর চূড়ান্ত সময়সূচী । আগামী ১০ মাসে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল সব মিলিয়ে মোট ৩১টি আন্তর্জাতিক ম্যাচখেলবে। বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য এক পরিবর্তনের গল্পের বছর ছিল ২০১৫ সাল। আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলে দেশে ফেরার পর টাইগাররা নিজ মাঠে পাকিস্তান, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয় করেছে।এর পর দীর্ঘ সময় কেটে গেলেও ২০১৬ সালে এখন পর্যন্ত কোনো পূর্ণাঙ্গ দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ খেলেনি টাইগাররা। তবে এই সেপ্টেম্বর থেকেই আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ফিরছে বাংলাদেশ। সামনে আসছে আফগানিস্তান, এরপর আসবে ইংল্যান্ড। ২৫ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তান সিরিজ দিয়েই আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা শুরু হবে টাইগারদের। এরপর ২০১৭ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি পর্যন্ত আন্তর্জাতিক অঙ্গনে অনেক ব্যস্ত সময় যাবে টাইগারদের।

এক নজরে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের আসন্ন সিরিজ:–
আফগানিস্তান সিরিজ:
প্রথমবারের মতো আফগানিস্তানের বিপক্ষে দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। সিরিজে থাকবে তিনটি একদিনের ম্যাচ। আর এই সিরিজ খেলতে ২১ সেপ্টেম্বর ঢাকায় আসবে আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। সিরিজের তিনটি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। আগামী২৫ ও ২৮ সেপ্টেম্বর এবং ১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচগুলো।

ইংল্যান্ড সিরিজ:
আফগানিস্তান দল বাংলাদেশে থাকাকালীন অবস্থায় ৩০ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে আসবে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। সফরে তিনটি একদিনের ম্যাচ ও দুইটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে ইংলিশরা। একদিনের ম্যাচ দিয়েই ইংল্যান্ডের এই সফর শুরু হবে। ৭ ও ৯ অক্টোবর মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে প্রথম দুটি একদিনের ম্যাচ। তৃতীয় ও শেষ একদিনের ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ১২ অক্টোবর। একই মাঠে হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট ২০ অক্টোবর থেকে। এরপর ঢাকায় ফিরে সিরিজের শেষ টেস্টটি শুরু হবে ২৮ অক্টোবর।

নিউজিল্যান্ড সফর:
ইংল্যান্ড সিরিজের পর টাইগাররা ব্যস্ত হয়ে যাবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে। বিপিএল শেষে কিছুদিনের বিরতি দিয়ে নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ। একদিনের ম্যাচ দিয়ে এই পূর্ণাজ্ঞ সিরিজ শুরু হবে। ২৬ ডিসেম্বর প্রথম একদিনের ম্যাচ হবে ক্রাইস্টচার্চে। ২৯ ও ৩১ ডিসেম্বর নেলসনে অনুষ্ঠিত হবে বাকি দুইটি একদিনের ম্যাচ। এরপর শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। নতুন বছরে টি-টোয়েন্টি দিয়ে টাইগারদের পথচলা শুরু হবে। ২০১৭ সালের ৩ জানুয়ারি নেপিয়ারে হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি। এরপর ৬ ও ৮ জানুয়ারি মাউন্ট মাউনগানুইতে হবে বাকি দুইটি ম্যাচ। ওয়েলিংটনে প্রথম টেস্ট শুরু হবে ১২ জানুয়ারি। ক্রাইস্টচার্চে দ্বিতীয় ও সিরিজের শেষ টেস্টম্যাচ ২০ জানুয়ারী থেকে।

ভারত সফর:
বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ২০০০ সালে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টেস্ট অভিষেক হয় বাংলাদেশ দলের। এরপর ১৬ বছর কেটে গেলেও বাংলাদেশ কখনো দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ খেলতে ভারতে যায়নি। অবশেষে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো টেস্ট খেলতে ভারত সফরে যাবে। এই সফরে শুধুমাত্র একটি টেস্ট ম্যাচেই থাকবে। ২০১৭ সালের ৮ ফেব্রুয়ারী এই ঐতিহাসিক টেস্ট ম্যাচটি ভারতের হায়দ্রাবাদে অনুষ্ঠিত হবে।

শ্রীলঙ্কা সফর:
ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম (এফটিপি) এর বাহিরে বাংলাদেশকে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলার প্রস্তাব দেয় শ্রীলংকা ক্রিকেট(এসএলসি)। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সেই প্রস্তাবে রাজি হয়। তবে এই সিরিজের সূচি এখনো চুড়ান্ত হয়নি। তবে ২০১৭ সালের মার্চে বাংলাদেশ দলের শ্রীলংকা সফরে থাকবে তিনটি ওয়ানডে, দুইটি টি-২০ ও দুইটি টেস্ট ম্যাচের পূর্ণাঙ্গ সিরিজ।

নিউজিল্যান্ড, আয়ারল্যান্ডের সাথে ত্রিদেশীয় সিরিজ :
শ্রীলংকা সফর করে দেশে ফিরে কিছু দিনের বিশ্রাম নিয়ে টাইগাররা চলে যাবে আয়ারল্যান্ডে। জুনে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নিবে টাইগাররা। বাংলাদেশ, স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড ছাড়া এই ত্রিদেশীয় সিরিজের অপর দল নিউজিল্যান্ড। এই সিরিজে প্রতিটি দল অন্য দলের সাথে দুইটি করে মোট চারটি ম্যাচ খেলবে। এরপর পয়েটের ভিত্তিতে দুই দল ফাইনাল খেলবে। স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ১২ মে টাইগারদের প্রথম ম্যাচ। এরপর ১৭মে দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড। ১৯মে বাংলাদেশ দ্বিতীয়বারের মতো আবার মাঠে নামবে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। আর নিজেদের শেষ ম্যাচে ২৪ মে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি:
ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষে বাংলাদেশ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলতে চলে যাবেইংল্যান্ডে। ১ জুন আইসিসির চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির উদ্বোধনী ম্যাচেই স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ওভালে অনুষ্ঠিত হবে এই ম্যাচ। এরপর একই ভেন্যুতে ৫ জুন বাংলাদেশ মাঠে নামবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নঅস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ মাঠে নামবে ৯ জুন নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে। কার্ডিফে হবে এই ম্যাচটি।প্রাথমিকভাবে ১০ মাসে একদিনের ম্যাচ, টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি মিলে ৩১টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তাই সামনের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি পর্যন্ত আন্তর্জাতিক অঙ্গনে অনেক ব্যস্ত থাকতে হবে টাইগারদের।

আর ২৫ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের সাথে একদিনের ম্যাচ দিয়েই এর সূচনা হবে।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

14702335_1819584224984771_8123928527070955022_n

দারুণ শতকে পন্টিংয়ের পাশে স্মিথ

স্পোর্টস ডেস্ক:অস্ট্রেলিয়ার সময়টা খুব একটা ভালো যাচ্ছে না। শ্রীলঙ্কা-দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টানা পাঁচটি টেস্ট হারের …

Mountain View