অধিনায়কের অনুমতি চাইলেন আম্পায়ার

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৬ at ৬:৩২ অপরাহ্ণ

বেলফাস্টে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে পরস্পরের মুখোমুখি লড়ছে আফগানিস্তান এবং আয়ারল্যান্ড। প্রথমে ব্যাট করে ৭ উইকেট হারিয়ে ২২৯ রান করেছে আফগানিস্তান। জয়ের জন্য ২৩০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছিল আয়ারল্যান্ড।

আয়ারল্যান্ড ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে আফগানিস্তানের ইয়ামিন আহমাদজাইয়ের পঞ্চম বলে এক্সট্রা কাভার বাউন্ডারিতে শট মারেন এড জয়েস। বাউন্ডারি ঠেকাতে বলের পিছু ছোটেন এক ফিল্ডার। ক্রিজে দাঁড়িয়ে এড জয়েস দেখেন যে বলটি বাউন্ডারি ছুঁয়ে ফেলেছে।1468772077-600x330

তাই দৌড় থামিয়ে মাঝপথে পোর্টারফিল্ডের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। এরই মধ্যে বল বাউন্ডারি থেকে কুড়িয়ে আফগান উইকেটরক্ষকের গ্লাভসে পাঠান ফিল্ডার। সঙ্গে সঙ্গে স্ট্যাম্প ভেঙ্গে আম্পায়ারের নিকট আউটের আবেদন করেন উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ শেহজাদ এবং আশ্চর্যজনকভাবে আম্পায়ারও আউটের সিদ্ধান্ত দিয়ে দিলেন।

অথচ টিভি রিপ্লেতে দেখা গেলো ফিল্ডার বাউন্ডারি লাইনের বাইরে দাঁড়িয়ে বলটি ঠেকালেন এবং সেটি কুড়িয়ে পাঠালেন। নিশ্চিতভাবেই এই বলটি বাউন্ডারি অর্থাৎ চার। অথচ, ভালো করে যাচাই না করে আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত দিলেন। উল্লেখ্য, ওই ম্যাচে আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করছিলেন অ্যালান নেইল এবং সি সামসুদ্দিন।

আম্পায়াররা যখন ভুল বুঝতে পারলেন, তখন আফগান অধিনায়ক আসগর স্টানিকজাইয়ের নিকট তিনি সিদ্ধান্ত পাল্টানোর অনুমতি চান। এ সময় অধিনায়ক থেকে শুরু করে সব আফগান ক্রিকেটার সেটিকে আউট বলে দাবি করেন এবং সিদ্ধান্ত পাল্টাতে অপারগতা জানায়। শেষ পর্যন্ত সেটি আউট হিসেবেই বহাল থাকে।

যেভাবেই হোক, এড জয়েসের আউটের ক্ষেত্রে জেনেও আফগান ক্রিকেটাররা যে আচরণ করলো, নিশ্চিতভাবে এটা ক্রিকেটের মূল স্পিরিট বিরোধি। এটা সত্যিকারার্থেই কারও কাম্য নয়।

এ সম্পর্কিত আরও