ঢাকা : ২৮ এপ্রিল, ২০১৭, শুক্রবার, ১১:৫৯ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

বিশ্বের সেরা ১০ বিশ্ববিদ্যালয়ের যত জানা-অজানা

full_1387020782_1473723976

14117896_1586496798311654_202832264111031888_n

অমিত রাউৎ, বিডি২৪টাইমসঃ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর র‌্যাংকিং করে থাকে নানা প্রতিষ্ঠান। এ র‌্যাংকিং করার জন্য তারা নিজেদের নানা মাপকাঠি বিবেচনা করে থাকে। সম্প্রতি এ ধরনের একটি র‌্যাংকিং প্রতিষ্ঠান সৌদি আরবের জেদ্দাভিত্তিক সেন্টার ফর ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংস (সি.ডব্লিউ.ইউ.আর.) বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়ে তাদের র‌্যাংকিং প্রকাশ করেছে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।

সি.ডব্লিউ.ইউ.আর. এ তালিকা তৈরির জন্য প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের যেসব বিষয় বিবেচনা করেছে তার মধ্যে রয়েছে শিক্ষার মান, শিক্ষাজীবন শেষে চাকরি, শিক্ষকদের যোগ্যতা, প্রকাশনা, গবেষণার প্রভাব, গবেষণার মান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাব ও পেটেন্টের সংখ্যা।

আসুন জেনে নেই তালিকা অনুযায়ী বিশ্বের সেরা ১০টি ইউনিভার্সিটির নাম –

১. হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়
আমেরিকার বিখ্যাত হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় এ বছরও পৃথিবীর সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বীকৃতি পেয়েছে। ঐতিহাসিকভাবে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্ব অপরিসীম। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ১৬৩৬ সালে। পৃথিবীর অনেক জ্ঞানীগুনী মানুষের জন্ম হয়েছে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।

নোবেল বিজয়ী থেকে আরম্ভ করে পৃথিবীর বড় বড় সব পুরষ্কার বিজয়ীদের অনেকেই লেখাপড়া করেছেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে। উচ্চশিক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে প্রাচীন প্রতিষ্ঠান হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়। মেধাবী শিক্ষার্থীদের অনেকেরই জীবনের লক্ষ্য থাকে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করা।

২. ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিউট অব টেকনোলজি
আমেরিকার আরেকটি বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি)। ক্যামব্রিজে অবস্থিত এ বিশ্ববিদ্যালয়টি মূলত শরীরবিদ্যা ও ইঞ্জিনিয়ারিং এর জন্য বিখ্যাত। তবে বর্তমানে জীববিজ্ঞান, অর্থনীতি, ভাষাবিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনাও এখানে পড়ানো হয়।

১৮৬১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে শিল্পায়ন বৃদ্ধির সময় প্রতিষ্ঠিত হয় এ বিশ্ববিদ্যালয়টি। বাংলাদেশের কিছু মেধাবী শিক্ষার্থীও বর্তমানে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষালাভ করছেন। তরুণ মেধাবীদের কাছে এমআইটি এক বিশাল স্বপ্নের অপর নাম।

৩.স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়
স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় যুক্তরাষ্ট্রে ক্যালিফোর্নিয়ায় অবস্থিত আরেকটি বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়। এটি মূলত গবেষণার জন্য বিখ্যাত। স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৮৫ সালে। ১৮৯১ সালের ১ অক্টোবর ৫৫৫ জন ছাত্র নিয়ে এ প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করে।

১৯০৫ সালে এক ঘূর্নিঝড়ে বিশ্ববিদ্যালয়টি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। পরবর্তীতে ১৯০৬ সালে তা পুনরায় প্রতিষ্ঠা করা হয়। পৃথিবীর বিখ্যাত লোকদের অনেকেই এ বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেছেন। তরুণদের কাছে এ বিশ্ববিদ্যালয়টিও একটি স্বপ্নের নাম।

৪.ইউনিভার্সিটি অব ক্যামব্রিজ
ইংরেজি ভাষাভাষী বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে এই বিশ্ববিদ্যালয়টি পৃথিবীর দ্বিতীয় প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়। পৃথিবীর সব বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে এটি তৃতীয় প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়। ইউনিভার্সিটি অব ক্যামব্রিজ প্রতিষ্ঠিত হয় মূলত ১২০৯ সালে। বর্তমানে ৩১ কলেজ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হচ্ছে।

৯০ জন নোবেল বিজয়ী এ প্রতিষ্ঠানের সাথে সংযুক্ত ছিলেন। যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে প্রাচীন ও বিখ্যাত এ বিশ্ববিদ্যালয়টি অনেক তরুণেরই স্বপ্নের বিশ্ববিদ্যালয়।

৫.ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ড
যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ডে অবস্থিত ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ড পৃথিবীর আরেকটি প্রাচীন ও বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়। যদিও এ বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার সঠিক তারিখ সম্পর্কে জানা যায় না, তবে ধারণা করা হয় ১০৯৬ সালে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ইংরেজি ভাষাভাষী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ড পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়।

পৃথিবীর সব বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে এটি পৃথিবীর দ্বিতীয় প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়। ৩১ কলেজ নিয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি পরিচালিত হয়ে থাকে। উচ্চাকাক্সক্ষী মানুষদের কাছে এ বিশ্ববিদ্যালয়টিও এক স্বপ্নের নাম।

৬.ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, বার্কলি
যুক্তরাষ্ট্রের আরেকটি বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া। এই বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৬৮ সালে। ১০ ক্যাম্পাস নিয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি পরিচালিত হচ্ছে।

এর মধ্যে ৯ আন্ডারগ্র্যাজুয়েট ও গ্র্যাজুয়েট ক্যাম্পাস, আর একটি প্রফেশনাল। যুক্তরাষ্টের ক্যালিফোর্নিয়ায় এ বিশ্ববিদ্যালয়টি অবস্থিত। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মেধাবী তরুণদের কাছে এ বিশ্ববিদ্যালয়টিও একটি স্বপ্নের নাম।

৭. প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়
যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির প্রিন্সটনে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি অবস্থিত। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ১৭৪৬ সালে কলেজ অব নিউ জার্সি নামে প্রতিষ্ঠিত হয়। আমেরিকান বিপ্লবের আগে প্রতিষ্ঠিত কলোনিয়াল ৯ কলেজের মধ্যে প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয় একটি।

বর্তমানে সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে এই বিশ্ববিদ্যালয়টি পৃথিবীর ষষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয়। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে হিউম্যানিটিজ, সোশ্যাল সায়েন্স, ন্যাচারাল সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ানো হয়। তরুণ মেধাবীদের কাছে এটিও একটি প্রত্যাশিত বিশ্ববিদ্যালয়।

৮. আট. ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়
১৭০১ সালে কানেকটিকাট উপনিবেশে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়। উচ্চশিক্ষার জন্য এই বিশ্ববিদ্যালয়টি আমেরিকার তৃতীয় প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়। এই বিশ্ববিদ্যালয়টি বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাটের নিউ হ্যাভেনে অবস্থিত।

এটি পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম একাডেমিক ইনস্টিটিউশন। পৃথিবীর ৫১ জন নোবেল বিজয়ী এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সংযুক্ত ছিলেন। মেধাবী তরুণদের কাছে এই বিশ্ববিদ্যালয়টিও একটি স্বপ্নের নাম।

৯.ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিউট অব টেকনোলজি
ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিউট অব টেকনোলজি সাধারণত ক্যালটেক নামে পরিচিত। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার প্যাসেনাডোতে এই বিশ্ববিদ্যালয়টি অবস্থিত। ১৮৯১ সালে প্রিপারেটরি এন্ড ভোকেশনাল স্কুল হিসেবে এই বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

১৯১০ সালে প্রিপারেটরি ও ভোকেশনাল স্কুল দুটিকে আলাদা করা হয়। ১৯২১ সালে প্রতিষ্ঠানটি ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিউট অব টেকনোলজি নাম ধারণ করে। পৃথিবীর বিখ্যাত এই বিশ্ববিদ্যালয়টি অনেক মেধাবী তরুণের বিশ্ববিদ্যালয়।

১০.ইউনির্ভাসিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, লস অ্যাঞ্জেলস
এই বিশ্ববিদ্যালয়টি যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসের ওয়েস্টউডে অবস্থিত। এটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯১৯ সালে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ক্যাম্পাস প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৬৮ সালে। এই বিশ্ববিদ্যালয়টি ৫ আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কলেজ, সাতটি প্রফেশনাল স্কুল ও চারটি প্রফেশনাল হেলথ সায়েন্স স্কুল নিয়ে পরিচালিত হয়ে আসছে। উচ্চশিক্ষার পাদপীঠ এই বিশ্ববিদ্যালয়টিও শত শত তরুণের আকাঙ্খার বস্তু।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

৩৭ তম বিসিএস প্রিলিতে যে ৬১ টি প্রশ্ন রিপিট হয়েছিলো

লেখাপড়া ডেস্ক :  ৩৭ তম বিসিএস প্রিলিমিনারিতে প্রশ্ন রিপিট হয়েছিলো যেখান থেকে থেকে । বিসিএস …

আপনার-মন্তব্য

Loading...

টাইমস is Stephen Fry proof thanks to caching by WP Super Cache