Mountain View

কিরণমালা দেখা নিয়ে ভাবি-ননদ এর যুদ্ধ!

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৬ at ১১:৪৭ অপরাহ্ণ

 

হবিগঞ্জে ভারতীয় নাটক ‘কিরণমালা’ দেখা নিয়ে সংঘর্ষে শতাধিক মানুষ আহত হয়। ছবি : এনটিভি

হবিগঞ্জে ভারতীয় টিভি ধারাবাহিক ‘কিরণমালা’ দেখাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে শিশুসহ শতাধিক লোক আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ১০ জনকে সিলেট এম এ জি ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

পুলিশ ও আহত লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গতকাল বুধবার রাতে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ধল বাজারে শাকির রেস্তোরাঁয় স্টার জলসা চ্যানেলে ‘কিরণমালা’ দেখা নিয়ে ধল গ্রামের সানু মিয়ার শিশুমেয়ে রেবা ও হাফসানার সঙ্গে একই গ্রামের আকবর মিয়ার মেয়ে শেফালীর কথা কাটাকাটি হয়। এ খবর পেয়ে উভয় পরিবারের লোকজন ওই রেস্তোরাঁয় এসে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে রেস্তোরাঁর মালিক কামরুলসহ পাঁচজন আহত হন। স্থানীয় লোকজন এসে রাতেই বিষয়টি সমাধান করে দেন।

 

এরই জের ধরে আজ  বৃহস্পতিবার দুপুরে উভয়পক্ষের লোকজন বাজারের পাশের একটি খেলার মাঠে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় বেশ কয়েকটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও যানবাহন ভাঙচুর করা হয়। প্রায় তিন ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলার সময় হবিগঞ্জ-লাখাই সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল।খবর পেয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসিনুল হকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে গিয়ে লাঠিচার্জ করে, ৯টি রাবার বুলেট ছোড়ে এবং পাঁচটি টিয়ার গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।পরে গুলি ও টেঁটাবিদ্ধ অবস্থায় আতর আলী, নানু মিয়া, গিয়াস উদ্দিন, মোশাররফ, খেলু মিয়া, টেনুসহ ১০ জনকে সিলেট এম এ জি ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।এ ছাড়া আহত অবস্থায় সদর আধুনিক হাসপাতালে ৯০ জনের বেশি লোককে পাঠানো হয়। এদের কেউ কেউ চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছে। ওসি ইয়াসিনুল হক বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ফের সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও