Mountain View

বন্ধুদের নিয়ে বান্ধবীকে গণধর্ষণ

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৬ at ১১:৩৭ অপরাহ্ণ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মুছাপুর ক্লোজার সি-বীচ এলাকায় পুলিশ ক্যাম্পের পাশে এক স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। ওই স্কুল ছাত্রীর বাড়ি ফেনী জেলার দাগনভুঞা উপজেলার শরীফপুর গ্রামে। সে বরইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী।

 

শনিবার রাত ১০টার দিকে পুলিশ ওই স্কুলছাত্রীকে (১৭) উদ্ধার করে। পরে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। নোয়াখালী সদর সার্কেলের এএসপি নবজ্যোতি খিসা কোম্পানীগঞ্জ থানায় গিয়ে স্কুলছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। পরে রাতেই পুলিশ দাগনভুঞা উপজেলার চণ্ডিপুর গ্রামের প্রদীপ শীল (২৭) ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের মো. নাজমুল হক সোহাগকে (২৩) গ্রেফতার করে। ওই স্কুলছাত্রী যুগান্তরকে জানান, শনিবার সকাল ১১টার দিকে ওই ছাত্রীকে নিয়ে তার বন্ধু প্রদীপ শীল মুছাপুর ক্লোজার সী-বিচ এলাকায় ঘুরাফেরা করতে যায়। বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে প্রদীপ শীল তাকে বাগান দেখাতে বাগানের ভিতরে নিয়ে যায়।

 

বাগানের ভেতর একটি তেঁতুল গাছের নিচে নিয়ে প্রথমে প্রদীপ তাকে ধর্ষণ করে। পরে সোহাগ, তৌহিদ, আকরাম ও আমিন ভয়ভীতি দেখিয়ে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে।

 

স্থানীয় ইউপি সদস্য মৌলভী আব্দুল কাইয়ুম, মহিলা সদস্য নুরজাহান বেগম, তার স্বামী শেখ শাহজাহান ও পুলিশ রাত ১০ টার দিকে স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।এদিকে রোববার সকালে স্কুল ছাত্রীর ডাক্তারী পরীক্ষা করে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট হাকিমের কাছে ১৬৪ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

 

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি সৈয়দ মো. ফজলে রাববী বিডি২৪টাইমসকে জানান, এ বিষয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা হয়েছে। ঘটনার থানায় মুছাপুর ক্লোজার এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View