ঢাকা : ২১ জুলাই, ২০১৭, শুক্রবার, ১২:৪৩ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

হিলারি অভিবাসীদের প্রতি অতিমাত্রায় নমনীয়: ট্রাম্প

full_340984900_1474255557

হিলারি ক্লিনটনের অভিবাসন নীতি অতিমাত্রায় শিথিল বলে অভীযোগ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

টেক্সাসে নির্বাচনী প্রচারণাকালে তিনি এ কথা বলেন। যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাচনের আর মাত্র সাত সপ্তাহের একটু বেশি সময় বাকি আছে। এর মধ্যে বিভিন্ন জনমত জরিপে আগামী নির্বাচনে ট্রাম্প ও হিলারির মধ্যে জোর লড়াইয়ের মধ্যে পূর্বাভাস পাওয়া গেছে।

বক্তৃতাকালে হিলারিকে কঠিন ভাষায় আক্রমণ করেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, তার ডেমোক্রেটিক প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারি কার্যত সীমান্ত কড়াকড়ি বাতিল করবেন এবং দেশকে ‘গুরুতর ঝুঁকির’ মধ্যে ফেলবে।

ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণার মূল বিষয়বস্তু হচ্ছে অভিবাসন ইস্যু। ট্রাম্প গত গ্রীষ্মে বলেছিলেন, মেক্সিকোর বেশিরভাগ অভিবাসী মাদক পাচারকারী ও ধর্ষক। আর তিনি গতকাল শনিবার স্পষ্ট করেন যে তার বক্তব্য বেশিরভাগ হিস্পানিক ভোটারদের পীড়া দিলেও এ ব্যাপারে আক্রমণাত্মক বক্তব্য রাখা বাদ দিবেন না।

ট্রাম্প নিশ্চিত করে বলেন, হিলারি নির্বাহী আদেশে সাধারণ ক্ষমা করে দেবেন, সংবিধান লংঘন করবেন এবং দেশকে কঠিন দুরবস্থার দিকে ঠেলে দেবেন।

হিলারি অভিবাসন চর্চা নমনীয় করার কথা উল্লেখ করে বলেছেন, তিনি কেবল সহিংস অপরাধী ও সন্ত্রাসীদের বিতাড়িত করবেন। আর এটা ট্রাম্পের নীতির বিপরীত। ট্রাম্প একটি সীমান্ত দেয়াল নির্মাণ ও অনিবন্ধিত বিপুল সংখ্যক অভিবাসীকে বিতাড়িত করার অঙ্গীকার করেছেন।

ট্রাম্প বলেন, অনিবন্ধিতদের হাতে প্রতিদিন আমেরিকার মানুষ প্রাণ হারাচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন আমাদের সীমান্ত খুলে রাখা হচ্ছে। আর নিরাপরাধ আমেরিকাবাসী অপ্রয়োজনে হামলার শিকার হচ্ছে ও মারা পড়ছে।’

ট্রাম্প বলেন, ‘প্রতিদিন আমরা আমাদের আইন প্রয়োগে ব্যর্থ হচ্ছি। বাবা-মা তাদের সন্তান হারানোর ঝুঁকিতে থাকছে।’

তিনি বারবার অভিযোগ করে বলেন, হিলারি প্রথম ১শ’ দিনের মধ্যে সাধারণ ক্ষমা চালু করবেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

আপনার-মন্তব্য