ঢাকা : ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, শনিবার, ৪:৫১ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

ক্রিস গেইল এবার চিটাগাংয়ে!

প্রথমবার খেলেছিলেন তিনি বরিশাল বার্নার্সের হয়ে। মাঝে একবার ঢাকার হয়ে মাঠে নামেন। গতবার ফিরে যান পুরনো ফ্র্যাঞ্চাইজি বরিশাল বুলস। তবে এবার বিপিএলের চতুর্থ আসরে ক্রিস গেইলকে দেখা যাবে চিটাগাং ভাইকিংসের হয়ে খেলতে। ৩০ সেপ্টেম্বর বিপিএলের ‘প্লেয়ার বাই চয়েজ’ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে লা মেরিডিয়ান হোটেলে। এরই মধ্যে বিদেশি ক্রিকেটারদের একটা ড্রাফটও তৈরি হয়ে গেছে। সেখানে প্রায় দুই শতাধিক ক্রিকেটার বিপিএল খেলতে আগ্রহ দেখিয়েছেন। তবে স্থানীয় ক্রিকেটারদের তালিকা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। বিপিএল সূত্রের খবর, আগামী দু-একদিনের মধ্যে সেটাও চূড়ান্ত হয়ে যাবে।

 

এবারের আসরে নতুন দুুটি ফ্র্যাঞ্চাইজি যোগ হতে যাচ্ছে। তারা রাজশাহী আর খুলনা পেতে অংশ নেবে এবারের আসরে। তাই ক্রিকেটারদের তালিকাতেও আসবে পরিবর্তন। গতবার পাঁচ দলের জন্য পাঁচ আইকন ক্রিকেটার চূড়ান্ত হয়েছিল। এবার সেখানে আরও দু’জন যোগ হতে যাচ্ছে। সাবি্বর রহমান রুম্মান হতে যাচ্ছেন রাজশাহীর আইকন ক্রিকেটার। তবে খুলনার আইকন ক্রিকেটার নিয়ে এখনও আলোচনা চলছে। মাশরাফি বিন মর্তুজা গেল মৌসুমে কুমিল্লার আইকন হয়ে খেলেছিলেন। এবার তাকে খুলনার আইকন করা হতে পারে, আবার সাকিবকেও দেখা যেতে পারে সেখানে। ঢাকার আইকন ক্রিকেটার নিয়েও চলছে গুঞ্জন, নাসির হোসেনের পরিবর্তনে সেখানে মাশরাফি কিংবা সাকিবের কাউকে দেখা যেতে পারে। মূলত আইকন ক্রিকেটার চূড়ান্ত হলেই বর্তমান চ্যাম্পিয়ন দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স তাদের দল সাজাবে বলে জানিয়েছেন ফ্র্যাঞ্চাইজিটির চেয়ারম্যান নাফিসা কামাল। ‘আমাদের কোচ সালাউদ্দিন এবার থাকছেন না আমাদের সঙ্গে। আইকন ক্রিকেটার নিয়েও ধোঁয়াশা আছে। তাই আইকন ক্রিকেটার ঠিক হওয়ার পর তার সঙ্গে আলোচনা করেই কোচ এবং ক্রিকেটার নেব আমরা।’ নাফিসা কামাল জানান, বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে আন্দ্রে রাসেলকে তারা ধরে রাখার চেষ্টা করবেন। এ ছাড়াও সুনিল নারিনও থাকছেন তাদের নজরে।

 

চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন এবার চিটাগাং ভাইকিংসের দায়িত্ব নেবেন। তামিম ইকবালকে সঙ্গে নিয়ে এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন দল বানানোর চেষ্টা করবেন তিনি। গতবারের মতো এবারও বিদেশি ক্রিকেটারদের তালিকায় চারটি গ্রেডিং করা হচ্ছে। গেল বার বিদেশি ক্রিকেটারদের গ্রেডিং ছিল ৭০, ৫০, ৪০ আর ৩০ হাজার মার্কিন ডলারের। এর বাইরে গেইল, আফ্রিদির মতো তারকারা ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে তাদের এজেন্টদের দিয়ে আলাদাভাবে চুক্তি করেছিলেন। এবারও সাঙ্গাকারা, আফ্রিদি আর গেইলরা একইভাবে প্লেয়ারস বাই চয়েজের বাইরে গিয়ে বিপিএলে অংশ নেবেন।

 

শুধু বিদেশি ক্রিকেটাররাই নয়, বিদেশি কোচরাও বিপিএলে অংশ নিতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এরই মধ্যে পাকিস্তানের ওয়াকার ইউনিস যোগাযোগ করছেন একটি ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে। এ ছাড়া পল নিক্সন, সিমন্সদের মতো কোচারদের এজেন্টরাও যোগাযোগ করছেন বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে। তবে চিটাগাংয়ের মতো রাজশাহীও নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় কোচ। সারোয়ার ইমরান দায়িত্ব নেবেন রাজশাহীর নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজিটির।

 

৪ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া বিপিএলে আরও একটি পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে। এবার আর চ্যানেল নাইন নয়, নতুন কোনো চ্যানেলে দেখানো হবে এই আসর। এরই মধ্যে স্থানীয় দুটি চ্যানেল আগ্রহ দেখিয়েছে বিপিএল সম্প্রচারে।

 

বিদেশি ক্রিকেটারদের ভিড়ে এবারও আধিপত্য ধরে রাখছেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। এরই মধ্যে আফ্রিদি, শোয়েব মালিক, আহমেদ শেহজাদ, উমর আকমলদের এজেন্ট ড্রাফটে তাদের নাম নিশ্চিত করেছেন। এ ছাড়া অস্ট্রেলিয়ার কিছু ক্রিকেটারও খেলতে চাচ্ছেন বিপিএল। তবে তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার ব্যাপারে ঢাকার হাইকমিশনের সুবজ সংকেতের একটি বড় ভূমিকা থাকছে। শুধু ভারত বাদে টেস্ট খেলুড়ে বাকি সব দেশের ক্রিকেটারই থাকছেন এবারের ড্রাফটে। এর সঙ্গে আফগানিস্তান, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডসের ক্রিকেটাররাও অংশ নিচ্ছেন বিপিএলের প্লেয়ার বাই চয়েজে।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

যে কারনে টুর্নামেন্ট সেরা মাহমুদউল্লাহ

সব সময়ই তারকাদের ভীড়ে পার্শ্ব নায়ক হয়ে থাকা মাহমুদউল্লাহ যেন এবার নিজের কাধেই তুলে নিয়েছিলেন …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *