Mountain View

ব্যাটে-বলে পাত্তাই পেল না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৬ at ৭:৫৮ পূর্বাহ্ণ

দুবাইতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি টোয়েন্টিতে অনেকটা অসহায় আত্মসমার্পন করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পাকিস্তানের পেস আক্রমণের সামনে দাড়াতেই পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা। আবার বোলিং করতে নেমেও পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানদের কঠিন কোন পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি তারা।

 

ব্যাটিং-বোলিংয়ের দর্শনীয় নৈপুণ্যে পাকিস্তান ম্যাচ জিতেছে ৯ উইকেটে। টি টোয়েন্টিতে শক্তিশালী দল হিসেবে পরিচিত বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা যেন লড়াই করার সাহসই হারিয়ে ফেলেছে আজ। ইনিংসের ১ বল বাকি থাকতেই অল আউট হয়েছে ১১৫ রানে। ওপেনার শারজিল খানের একমাত্র উইকেটটি হারিয়ে পাকিস্তান জয় তুলে নিয়েছে ৩৪ বল বাকি থাকতেই।

 

 

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পাকিস্তানি পেসার ইমাদ ওয়াসিম প্রথম দুই ওভারেই ফিরিয়ে দিয়েছেন ক্যারিবীয় টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে। মাত্র ১৫ রান তুলতেই তিন উইকেট হারায় আন্দ্রে ফ্লেচারের দল। শেষ পর্যন্ত ৪ ওভারে ইমাদের শিকার ১৪ রানে ৫ উইকেট। এটি তার ক্যারিয়ার সেরা টি টোয়েন্টি বোলিং। এছাড়া সোহেল তানভির নিয়েছেন ২টি উইকেট।

 

ইমাদ প্রথম ওভারেই ৩ রানের মাথায় তুলে নেন ওপেনার এভিন লুইসকে। এরপর ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ওভারে বোলিং করতে এসে জোড়া আঘাতে ফিরিয়ে দেন অধিনায়ক ফ্লেচার ও মারলন স্যামুলেয়সকে। ৩ ওভার শেষ তাদের স্কোর দাড়ায় ৩ উকেটে ১৫ রান।

 

এরপর মোহাম্মদ নওয়াজ ও হাসান আলী পরপর দুটি উইকেট তুলে নিলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্কোর হয় ৪ উইকেটে ২২। শুরুর ধাক্কা সামলে আর মাথা তুলে দাড়াতে পারেনি ফ্লেচারের দল। তবে এই ধ্বংসযজ্ঞের মধ্যেও লড়াই করেছেন ডোয়াইন ব্রাভো। ৫৪ বলে ৫৫ রানের ইনিংস খেলে দলের স্কোরটা ভদ্রস্থ করেছেন এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। দলের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পেকার জেরোমি টেইলরের ২১। তার চেষ্টায়ই শত রান পার করে দল।

 

ছোট টার্গেট তাড়া করতে নেমেও টি টোয়েন্টি মেজাজে ব্যাট করতে থাকে পাকিস্তান। দলীয় ২৮ রানে শারজিল খান ফিরে যাওয়ার পর ম্যাচ শেষ করেন বাবর আজম ও খালিদ লতিফ। বাবর ৩৭ বলে ৫৫ ও লতিফ ৩২ বলে ৩৪ রান করে অপরাজিত থাকেন।

এ সম্পর্কিত আরও